জাহাজ ভাড়া বাড়ার সুফল পেল বিএসসি, মুনাফায় লাফ

আন্তর্জাতিক পণ্য পরিবহনে জাহাজ ভাড়া বেড়ে যাওয়ার সুফল পেয়েছে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি); এতে সবশেষ নয় মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিটির মুনাফা ৩১০ শতাংশের বেশি বেড়েছে।

চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটি ১৭৬ কোটি ৭৯ লাখ টাকা মুনাফা করেছে, যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৩১০ শতাংশ বেশি। আগের বছর একই সময় কোম্পানিটি ৪৩ কোটি ১৭ লাখ টাকা মুনাফা করেছিল।

এ সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ দশমিক ৫৯ টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২ দশমিক ৮৩ টাকা।

আর জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত তৃতীয় প্রান্তিকে ইপিএস হয়েছে ৩ দশমিক ৩১ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ১ দশমিক ১৭ টাকা।

বৃহস্পতিবার বিএসসি আর্থিক প্রতিবেদনের সবশেষ হিসাব ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে।

মুনাফা বাড়ার কারণ হিসেবে রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিটি আন্তর্জাতিক বাজারে জাহাজের ভাড়া বেড়ে যাওয়ার সুফল পাওয়ার কথা জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার মুনাফা বাড়ার এ খবরে বিএসসির শেয়ারের দাম ৫ টাকা ৭০ পয়সা বেড়ে ১১৮ টাকা ৭০ পয়সায় উঠেছে। বুধবার শেয়ারটির সমাপনী মূল্য ছিল ১১৩ টাকা।

কোভিড মহামারী পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করলে বিশ্বব্যাপী পণ্য কেনাবেচা বাড়লে জাহাজ পণ্য পরিবহন বাড়তে থাকে। এতে জাহাজের চাহিদা বাড়লে ভাড়াও বাড়তে থাকে। ভাড়া বাড়ার এ প্রবণতা শুরু হয় ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে।

জাতিসংঘ বলছে, জাহাজ ভাড়া বেড়ে যাওয়ায় করোনাভাইরাস মহামারী পরবর্তী বিশ্বের অর্থনীতি যে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে তাতে ব্যাঘাত ঘটছে।

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত রাষ্ট্রায়ত্ত বিএসসির মোট আটটি জাহাজ রয়েছে। ১৯৭৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির শেয়ার বর্তমানে লেনদেন হচ্ছে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে।

পুঁজিবাজারে কোম্পানিটির ১৫ কোটি ২৫ লাখ ৩৫ হাজার ৪০টি শেয়ার রয়েছে। এর মধ্যে সরকারের হাতে আছে ৫২ দশমিক ১০ শতাংশ শেয়ার।

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে আছে ২৪ দশমিক ৩০ শতাংশ শেয়ার এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ২৩ দশমিক ৬০ শতাংশ শেয়ার।

বিএসসির বর্তমান বাজার মূলধন ১ হাজার ৭২৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। পরিশোধিত মূলধন ১৫২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা; রিজার্ভের পরিমাণ ৩০২ কোটি ১১ লাখ টাকা।