এবার হংকংয়ে দেখা মিললো আলিবাবা প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা’র

ছবি: রয়টার্স
সম্প্রতি আলিবাবা প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা’কে দেখা গেছে হংকংয়ে। দুই সূত্রের তথ্য অনুসারে, সেখানে ব্যবসায়িক সহযোগীদের সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি।

গত বছরের অক্টোবরে সাংহাইয়ে বক্তব্য রাখার সময় চীনের আর্থিক নিয়ন্ত্রকদের সমালোচনা করেন আলিবাবা প্রতিষ্ঠাতা। এর পরপরই চীনা নিয়ন্ত্রকদের খড়গ নেমে আসে তার ব্যবসায়িক সাম্রাজ্যের ‍উপর। বন্ধ হয়ে যায় তার অ্যান্ট গ্রুপের মেগা ‘ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং’। সবার চোখের আড়াল হয়ে যান জ্যাক মা।

এরপর খুব কমই দেখা গেছে চীনা এ শতকোটিপতিকে। রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, ওই ঘটনার পর চীনের মূল ভূখণ্ডে হাতে গোণা কয়েকবার মাত্র জনসম্মুখে এসেছেন মা। হিসেবে গত অক্টোবরের পর এবারই প্রথম হংকংয়ে পা রাখলেন তিনি।

লোকচক্ষুর অন্তরালে চলে যাওয়ার পর এ বছরের জানুয়ারিতে প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা মেলে তার। সেখানে একদল শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় সাবেক আলিবাবা প্রধানকে।

পরে মে মাসে আলিবাবা’র সূত্ররা জানায়, প্রতিষ্ঠানের হাংঝোউ কার্যালয় প্রাঙ্গনে দেখা গেছে মা -কে। সেখানে বার্ষিক “আলি ডে” আয়োজনে যোগ দিয়েছেন তিনি।

পরে সেপ্টেম্বরের এক তারিখে সামনে আসে জ্যাক মা’র কিছু আলোকচিত্র। সেখানে দেখা যায়, পূর্ব ঝেজিয়াং প্রদেশের কিছু কৃষি গ্রিনহাউস ঘুরে দেখছেন তিনি।

এর পরদিনই আলিবাবা “সর্বজনীন সমৃদ্ধির” সমর্থনে ২০২৫ সাল নাগাদ হাজার কোটি ইউয়ান বিনিয়োগ করবে বলে জানায়। এর মধ্য দিয়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সম্পদ বন্টন উদ্যোগে সমর্থন জানানো সর্বশেষ কর্পোরেশন হিসেবে নাম লেখায় আলিবাবা।

জ্যাক মা সাধারণত আলিবাবা’র মাধ্যমে নিজ মন্তব্য জানান। আলিবাবা তার উপস্থিতির সাম্প্রতিক খবরটি নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেয়নি। অন্যদিকে, সূত্ররাও গোপনীয়তার কারণে নিজেদের পরিচয় প্রকাশে রাজি হননি।     

রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, গত সপ্তাহে অন্তত “কয়েক জন” ব্যবসায়িক সহযোগীর সঙ্গে দেখা করেছেন মা।

আলিবাবা প্রতিষ্ঠাতার কার্যক্রম মূলত পূর্ব চীনা শহর হাংঝোউ ভিত্তিক। আলিবাবার প্রধান কার্যালয়ও সেখানেই। তবে, হংকংয়ে অন্তত একটি বিলাসবহুল বাড়ি রয়েছে জ্যাক মা’র।

আলিবাবা হংকং শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে আধিপত্য বিস্তারী আচরণ থেকে শুরু করে ভোক্তা অধিকার প্রশ্নে নিয়ন্ত্রকদের তোপের মুখে রয়েছে আলিবাবা ও তার প্রযুক্তি প্রতিদ্বন্দ্বীরা।