বিভ্রান্তিকর টুইট চিহ্নিত করণ প্রক্রিয়ার পরিধি বাড়াচ্ছে টুইটার

বিভ্রান্তিকর টুইট চিহ্নিত করার পরীক্ষামূলক ফিচারের পরিধি বাড়াচ্ছে টু্ইটার। এখন ব্রাজিল, স্পেন আর ফিলিপিন্সের ব্যবহারকারীদেরও পরীক্ষামূলক ফিচারটির কার্যক্ষমতা যাচাই করে দেখার সুযোগ দেবে শীর্ষস্থানীয় মাইক্রোব্লগিং সেবাটি।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর তথ্যের প্রচার নিয়ে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে টুইটার। সমালোচনার মুখে গেল বছরের আগষ্ট মাসে পরীক্ষামূলক ফিচারটি চালু করে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রাথমিক পর্যায়ে কেবল যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যবহারকারীদের জন্য ফিচারটি চালু করেছিল টুইটার।

পরীক্ষামূলক প্রচলনের পর এখন পর্যন্ত টুইটার কর্তৃপক্ষ ৩০ লাখ বিভ্রান্তিকর টুইটের অভিযোগ পেয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। টুইটার নীতিমালার পরিপন্থি বলে মনে করেন এমন টুইটগুলো নিয়েই অভিযোগ জানাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা। 

২০২১ সালেই বার্ডওয়াচ নামের আরেকটি প্রকল্প শুরু করেছে এই সোশাল মিডিয়া জায়ান্ট। এই ফিচারটিতে অংশগ্রহণকারীরা টুইটের সঙ্গে বাড়তি নোট জুড়ে দিয়ে তাতে প্রয়োজনীয় আনুসাঙ্গিক তথ্য যোগ করতে পারেন। বিভ্রান্তিকর ও ভুয়া টুইট মোকাবেলায় আরেকটি উপায় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে এই ফিচারটিকে। তবে, টুইটারের মূল সাইটে নয়, নোটগুলো জমা থাকে ভিন্ন একটি ওয়েবসাইটে।