লিনাক্স ‘ওপেন-সোর্স’ জিপিইউ’র দিকে এগোচ্ছে এনভিডিয়া

দীর্ঘদিন ধরে কেবল আভাস দেওয়ার পর, লিনাক্স জিপিইউ ড্রাইভার ‘ওপেন-সোর্সিং’য়ের ঘোষণা দিয়েছে চিপ নির্মাতা এনভিডিয়া। এত বছর ড্রাইভার ওপেন-সোর্সিং করছিল ইনটেল ও এএমডি’র মতো প্রতিষ্ঠান।

এনভিডিয়া লিনাক্স ড্রাইভারের ওপেন-সোর্সিংয়ের ঘোষণা দিয়েছে বুধবার।

যেসব লিনাক্স ব্যবহারকারী এর আগে এনভিডিয়ার ড্রাইভার এড়াতে চাইতেন, তাদের ‘নুভা প্রোজেক্ট’-এর মতো ‘রিভার্স-ইঞ্জিনিয়ার্ড’ সফটওয়্যারের উপর নির্ভর করতে হতো।

পুরনো হার্ডওয়্যারে সবচেয়ে ভালো কাজ করা এই সফটওয়্যার এনভিডিয়ার জিপিইউয়ে যথেষ্ট সুবিধাজনক ছিল না বলে প্রতিবেদনে লিখেছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট আর্স টেকনিকা।

একে “লিনাক্সে এনভিডিয়া জিপিইউ ব্যবহারের অভিজ্ঞতায় গুরুত্বপূর্ণ এক পদক্ষেপ” হিসেবে এক ব্লগ পোস্টে বর্ণনা করেছেন বেশ কিছু এনভিডিয়া কর্মী।

অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ট সমন্ময়, ডিবাগ, একত্রীকরণ ও ফের অবদান রাখায় নির্মাতাদের জন্য পদক্ষেপটি গুরুত্বপূর্ণ বলে ওই ব্লগ পোস্টে উল্লেখ করেছেন কর্মীরা।

দ্বৈত ‘এমআইটি/জিপিএল’ লাইসেন্সের অধীনে একটি বিশেষ ওপেন সোর্স কার্নেল ড্রাইভার উন্মোচন করছে এনভিডিয়া। এটি এখনও সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য রাখা ওপেন-সোর্স ড্রাইভারের অংশ নয় বলে উঠে এসেছে আর্স টেকনিকার প্রতিবেদনে।

এসব চালিত ড্রাইভারের মধ্যে আছে ‘ওপেনজিএল’, ‘ভালকান’, ‘ওপেনসিএল’ এবং ‘সিইউডিএ’। তবে, এসব ড্রাইভারের সোর্স কোড এখনও উন্মুক্ত নয় এবং জিপিইউ সিস্টেম প্রসেসরের (জিএসপি) ফার্মওয়্যার হিসেবে রয়েছে।

এনভিডিয়া মালিকানাধীন এসব ড্রাইভার ২০১২ সালের কেপলার নির্মাণ কৌশলে তৈরি হয়েছে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে আর্স টেকনিকা। এ ছাড়া, এসব ওপেন সোর্স ড্রাইভার এখনই লিনাক্স কার্নেলের মতো সমন্বিত আপস্ট্রিমে আসবে না।

এনভিডিয়া বলছে, ‘ডেটা সেন্টার জিপিইউ’-এর জন্য বর্তমান ড্রাইভারের প্রাথমিক সমর্থন ‘উৎপাদণের জন্য প্রস্তুত’। তবে, জিফোর্স, কোয়াড্রো এবং অন্যান্য গ্রাহক জিপিউ’র জন্য এগুলো এখনও ‘আলফা’ পর্যায়ে রয়েছে বলে বর্ণনা করছে প্রতিষ্ঠানটি।

ক্লোজড-সোর্স ফার্মওয়্যারে এতগুলো ফাংশন চালানোর জন্য এনভিডিয়ার সমালোচনা করেছেন ‘আসাহি লিনাক্স’-এর অন্যতম নির্মাতা হেক্টর মার্টিন। তবে, সাম্প্রতিক পদক্ষেপকে ওপেন-সোর্স ড্রাইভারের ব্যবহারিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের ক্ষেত্রে জয় হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন তিনি।

“তবে, যারা এটি নিয়ে আগ্রহী ছিলেন তারা কোনো স্বাধীনতা পাননি।” --লিখেছেন মার্টিন।

“প্রায় একই সংখ্যক কোড আগের মতোই নাগালের বাইরে রয়েছে।”