নিউ ইয়র্কে নিষিদ্ধ হল প্লাস্টিক ব্যাগ

যুক্তরাষ্ট্রে ক্যালিফোর্নিয়ার পর এবার নিউ ইয়র্কে নিষিদ্ধ হয়েছে প্লাস্টিক ব্যাগ।

মঙ্গলবার থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে। কেউ নিয়ম ভঙ্গ করলে তাকে ৫০০ ডলার জরিমানা করা হবে।

পরিবেশ সুরক্ষার এই বিধি পুরোপুরি কার্যকর করতে রাজ্য ও নগর প্রশাসন মাঠে থাকবে।

নিউ ইয়র্ক রাজ্যর পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে প্লাস্টিক ব্যাগ নিষিদ্ধের বিল পাস হয়েছিল গত বছরই।

কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে এতদিন তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। তাছাড়া, প্লাস্টিক-ব্যাগ ববসায়ীরাও আদালতের শরণাপন্ন হয়েছিলেন।

পরিবেশ বিজ্ঞানী ও পরিবেশ সুরক্ষা নিয়ে আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, নিউ ইয়র্ক রাজ্যে প্রতি বছর গড়ে ২ হাজার ৩শ’ কোটি প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহার হয়েছে।

এর ৮৫% ফেলে দেয়া হয় যত্রতত্র। এগুলো রিসাইক্লিং মেশিনেও ধ্বংস হয় না বা পচেও যায় না। রাস্তা-ঘাট, নালা-নর্দমায় জমে থাকে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম প্লাস্টিক ব্যাগ নিষিদ্ধ হয় ক্যালিফোর্নিয়ায়। নিউ ইয়র্ক হলো দ্বিতীয় রাজ্য।

ভারমন্ট এবং কেনাটিকেটসহ ৬টি রাজ্যে প্লাস্টিক ব্যাগ নিষিদ্ধ বিল পাস হলেও তা এখনও আইনে পরিণত হতে পারেনি মামলার কারণে।

সর্বশেষ গত মাসে নিউ জার্সির পার্লামেন্টেও প্লাস্টিক ব্যাগ নিষিদ্ধ বিল পাস হয়েছে। নিউ জার্সিতে একইসাথে একবার ব্যবহারেই নষ্ট হয়ে যায় এমন কাগুজে ব্যাগও নিষিদ্ধ করার কথা রয়েছে।

নিউ ইয়র্কে প্লাস্টিক ব্যাগ নিষিদ্ধ করা হলেও আপাতত রেস্তোরাঁগুলোতে মাছ-মাংস প্রক্রিয়াজাতকরণে এই ব্যাগ ব্যবহারের অনুমতি থাকছে। একইভাবে রেস্তোরাঁ থেকে খাবার বাসায় নেওয়ার জন্যও প্লাস্টিক ব্যাগের ব্যবহার আপাতত চলবে।

মুদির দোকানের জিনিস যারা কিনবেন তাদেরকে কাপড়ের অথবা কাগজের ব্যাগ (বারবার ব্যবহার করা যায়) সাথে রাখতে হবে। ভারী নয় এমন জিনিস বহনের জন্য দোকানে কাগজের ব্যাগ বিক্রি হবে ৫ সেন্ট করে।

তবে যারা ফুডস্ট্যাম্প ব্যবহার করবেন তাদেরকে ফ্রি দেওয়া হবে একবার ব্যবহারযোগ্য এই কাগজের ব্যাগ।

রাজ্য প্রশাসন নতুন এই বিধি কার্যকরে সর্বসাধারণের আন্তরিক সহায়তা চেয়েছে। তারা বলছেন, জনস্বার্থে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।