কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে মন্তব্য: কানাডার রাষ্ট্রদূত তলব করে ভারতের প্রতিবাদ

ভারতের কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে ক'দিন আগেই কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিল দিল্লি। এবার কানাডার রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সেই মন্তব্যের প্রতিবাদ জানাল ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

শুক্রবার মন্ত্রণালয় বলেছে, “ট্রুডোর মন্তব্য ভারতের অভ্যন্তরীন বিষয়ে হস্তক্ষেপ। এতে দু’দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক মারাত্মকভাবে ব্যাহত হবে।”

গত সোমবার শিখ ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা গুরু নানকের ৫৫১তম জন্মদিন উপলক্ষে কানাডার শিখ সম্প্রদায়ের এক অনলাইন অনুষ্ঠানে অংশ নেন ট্রুডো। সেখানেই ভারতে চলমান কৃষক আন্দোলন নিয়ে তিনি বলেছিলেন, “পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। আমরা সবাই তাদের পরিবার এবং বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে চিন্তিত।”

ট্রুডোর মতো একই মন্তব্য করেছিলেন কানাডার কনজারভেটিভ পার্টির এক নেতাও।ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, “ভারতীয় কৃষকদের নিয়ে এমন মন্তব্য আমাদের অভ্যন্তরীন বিষয়ে হস্তক্ষেপ; এটি মেনে নেওয়া যায় না।”

এই ধরনের মন্তব্যের কারণে কানাডায় ভারতীয় দূতাবাসের সামনে কট্টরপন্থিরা বিক্ষোভ করেছে এবং এ পরিস্থিতিতে ভারত সরকার সেখানকার কূটনীতিকদের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

“আমরা আশা করব, কানাডা সরকার যে কোনও চরমপন্থি বিক্ষোভ বা আন্দোলন থেকে সেখানকার ভারতীয় দূতবাস ও এর কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে,” বলা হয়েছে মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে।

কানাডার দূতাবাস এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেনি।

ভারতে আন্দোলনকারী কৃষকদের আলোচনায় বসায় আমন্ত্রণ সরকারের  

ভারতে গত সপ্তাহ থেকেই চলছে কৃষক বিক্ষোভ। এবছর কার্যকর হওয়া ৩ কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড-সহ কয়েকটি রাজ্যের কৃষকরা ‘দিল্লি চল’ কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছে।

অচলাবস্থা নিরসনে ভারত সরকার কৃষকদের সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নিয়েছে।