মার্কিন-নেটো বাহিনীকে ‘না’ বলুন: আফগান প্রতিবেশীদেরকে রাশিয়া

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও নেটো বাহিনী বিদায় নেওয়ার পর আবারও তাদেরকে এ অঞ্চলে ঠাঁই না দিতে প্রতিবেশী দেশগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া।

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ আফগানিস্তান নিয়ে ইরানের রাজধানী তেহরানে আয়োজিত একটি সম্মেলনে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে দেওয়া এক বক্তব্যে এই আহ্বান জানান। সম্মেলনে ইরান, চীন, পাকিস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং উজবেকিস্তানও অংশ নিয়েছে।

দেশগুলোকে সুস্পষ্ট বার্তা দিয়ে ল্যাভরভ বলেন, “মার্কিন ও নেটো বাহিনীর সামরিক উপস্থিতি মেনে না নেওয়ার জন্য আমরা আফগানিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোকে আহ্বান জানাচ্ছি। আফগান ভূখণ্ড ছেড়ে চলে যাওয়ার পর তারা আবার সেখানে ভেঁড়ার পরিকল্পনায় আছে।”

আফগানিস্তান থেকে মধ্য এশিয়ায় জঙ্গি ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি নিয়ে ক্রেমলিন উদ্বিগ্ন। এই জঙ্গি মোকাবেলার অজুহাতে এই অঞ্চলে, বিশেষ করে, সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ ছিল এমন এলাকায় পশ্চিমারা পা রাখার কথা ভাবতে পারে বলে আশঙ্কা রাশিয়ার।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, “আফগানিস্তান থেকে শরণার্থীর ঢল কমানো এবং নিয়ন্ত্রণ করাটা গুরুত্বপূর্ণ। অপরাধী ও সন্ত্রাসীরা ইতোমধ্যেই শরণার্থীর ছদ্মবেশে আফগানিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোতে ঢোকার চেষ্টা করছে।”

তাজিকিস্তানে বৃহত্তম বিদেশি সামরিক ঘাঁটি পরিচালনা করে আসছে রাশিয়া। তাজিকিস্তানের সঙ্গে আফগানিস্তানের দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে। তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর তাজিকিস্তানে সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম বাড়িয়েছে রাশিয়া।