নেপালে ২২ আরোহী নিয়ে বিমান নিখোঁজ

ফ্লাইটরাডার টোয়েন্টিফোর ডটকমের এই ছবিটি কাঠমান্ডু পোস্ট থেকে নেওয়া
নেপালের পর্যটন নগরী পোখারা থেকে জমসম বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে ছোট একটি যাত্রীবাহী বিমান নিখোঁজ হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

তারা এয়ারের বিমানটি রোববার স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটের দিকে পোখারা ছেড়ে যায়, এর ১৫ মিনিট পরই কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে এর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বলে জানিয়েছেন বেসরকারি এয়ারলাইন্সটির এক মুখপাত্র।

নিখোঁজ হওয়ার সময় টুইন অটার ৯এন-এইটি বিমানটিতে ক্রু ছাড়াও ৪ ভারতীয়, ২ জার্মান ও ১৩ নেপালি যাত্রী ছিলেন।  

স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টার দিকে বিমানটির জমসম বিমানবন্দরে নামার কথা ছিল বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

“বিমানটিকে মুস্তাং জেলার জমসমের আকাশে দেখা যাওয়ার পর সেটিকে মাউন্ট ধৌলাগিরির দিকে ঘুরতে দেখা যায়; এরপর থেকে বিমানটির সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না,” মুখ্য জেলা কর্মকর্তা নেত্র প্রসাদ শর্মা এমনটা বলেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএনআই।

জমসম বিমানবন্দরের এক এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার জানিয়েছেন, জমসমের ঘাসায় বিকট শব্দ শোনা গেছে বলে নিশ্চিত হওয়া যায়নি এমন প্রতিবেদনে জানা গেছে।

এর আগে এক পুলিশ কর্মকর্তা বিমানটি পাহাড়ি মুস্তাং জেলার লেটের তিতি এলাকায় বিধ্বস্ত হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা দিয়েছিলেন।

মুস্তাং হিমালয়ের কোলঘেঁষা দেশটির পঞ্চম বৃহত্তম জেলা।

“তিতির বাসিন্দারা ফোন করে অস্বাভাবিক বড় শব্দ শুনতে পাওয়ার কথা জানিয়েছে। উদ্ধার অভিযানে আমরা ওই এলাকায় একটি হেলিকপ্টার মোতায়েন করছি,” বলেছেন মুস্তাংয়ের জেলা পুলিশ কার্যালয়ের ডিএসপি রাম কুমার দানি।

নিখোঁজ বিমানের সন্ধানে পোখারা ও মুস্তাং থেকে দুটি বেসরকারি হেলিকপ্টার মোতায়েন করা হয়েছে।

উদ্ধার অভিযানের জন্য নেপালের সেনাবাহিনীর একটি কপ্টারও প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে ফোনে এএনআইকে বলেছেন নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ফাদিন্দ্র মনি পোখারেল।

আরও পড়ুন