শরণখোলায় বাঘের চামড়াসহ একজন গ্রেপ্তার

সুন্দরবন থেকে শিকার করা একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের চামড়াসহ এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ও বনবিভাগ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা পাঁচ রাস্তার মোড়ের বাসস্ট্যান্ড থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার মো. গাউস ফকির (৪৫) শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ সাউথখালী গ্রামের প্রয়াত রশিদ ফকিরের ছেলে।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় র‌্যাব ও বনবিভাগ যৌথভাবে বাঘের চামড়ার ক্রেতা সেজে শরণখোলার রায়েন্দা পাঁচ রাস্তার মোড়ের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থান নেয়।

“বিক্রেতা গাউস ফকির সুন্দরবন থেকে শিকার করা একটি বাঘের চামড়া নিয়ে বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া গাউস ফকির চামড়া পাচারকারী।”

ডিএফও বেলায়েত হোসেন আরও বলেন, বাঘটিকে সুন্দরবনের কোন এলাকা থেকে কবে শিকার করা হয়েছে এবং গ্রেপ্তার হওয়া গাউসের সঙ্গে আর কারা জড়িত রয়েছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। চামড়াসহ গাউস ফকিরকে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তাকে র‌্যাব কার্যালয়ে রাতভর জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং বুধবার বাগেরহাট বনবিভাগের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান এই বন কর্মকর্তা।