পঞ্চম ধাপে পৌর নির্বাচন: অধিকাংশ মেয়র আ. লীগের

ফাইল ছবি
দেশব্যাপী পৌরসভা নির্বাচনের পঞ্চম ধাপের ভোটে ২১টির ফলাফল পাওয়া গেছে, যেখানে ২০ জন মেয়র আওয়ামী লীগ মনোনীত । একজন জয়লাভ করেছেন বিএনপির প্রার্থী।

রোববার ২৯টি পৌরসভায় ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

নাচোলে নৌকা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল পৗরসভা নির্বাচনে ৪ হাজার ৫১২ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুর রশিদ খাঁন বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

রোববার ভোট গণনা শেষে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোতোওয়াক্কিল রহমান ফলাফল ঘোষণা করে বলেন, মেয়র প্রার্থী (আ. লীগ বিদ্রোহী) রেজাউল ইসলাম বাবু পেয়েছেন ২ হাজার ৮৯২ ভোট।

বিএনপির বিদ্রোহী আমানুল্লাহ মাসুদ ২ হাজার ৭৯১ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

বিএনপির প্রার্থী মাসউদা হক শুচি ২ হাজার ৩১ ভোট পেয়ে চতুর্থ হয়েছেন।

ভৈরব পৌরসভায় আওয়ামী লীগ বিজয়ী

কিশোরগঞ্জের ভৈরব পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইফতেখার হোসেন বেনু বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত মোহাম্মদ আশ্রাফুল আলম জানান, নির্বাচনে ৩৫টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফলে আওয়ামী লীগ মনোনীত ইফতেখার হোসেন বেনু ৩৭ হাজার ৯৪৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মো. শাহীন পেয়েছেন ৯ হাজার ৬৯০ ভোট।

ভৈরব পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ৭৯ হাজার ৭১৩ জন।

মহেশপুর ও কালীগঞ্জের ফল

মহেশপুর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুর রশিদ খান ১৩ হাজার ৫৯৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে দ্বিতীয় বার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আমিরুল ইসলাম খান পেয়েছেন এক হাজার ৫৫ ভোট।

সহকারী রির্টানিং অফিসার আলমগির হোসেন জানান, কালীগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী আশরাফুল আলম আশরাফ ১৯ হাজার ৪২৭ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বার বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মাহাবুবার রহমান পেয়েছেন ৩ হাজার ১৫০ ভোট।

রায়পুরে মেয়র রুবেল

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

ভোট গণনা শেষে রোববার সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে এ ফলাফল ঘোষণা করেন জেলা নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন।

গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট নির্বাচনে ৮ হাজার ৪০২ ভোট পেয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপি সমর্থিত ধানে শীষ প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৪৪১ ভোট।

জয়পুরহাট পৌরসভায় আবারও নৌকা

দেশব্যাপী পৌরসভা নির্বাচনের পঞ্চম ধাপে জয়পুরহাটে মেয়র পদে বেসরকারিভাবে ফের নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক।

রোববার সন্ধ্যায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম এ ফলাফল জানিয়েছেন।

মোস্তাক নৌকা প্রতীক নিয়ে ২৪ হাজার ৪৯০ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শামছুল হক ধানের শীষ মার্কায় পেয়েছেন ৪ হাজার ১৬১ ভোট।

অপর প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বেদারুল ইসলাম বেদিন ৫৫৮ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসিবুল ইসলাম ১ হাজার ৫২৫ ভোট এবং  ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ডা. মুহাম্মদ জহুরুল হক ৪১২ ভোট পেয়েছেন।

নান্দাইলে টানা দ্বিতীয়বার মেয়র রফিক

ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার নির্বাচনে টানা দ্বিতীয়বার মেয়র হতে চলেছেন নৌকার প্রতীকের প্রার্থী রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া।

নান্দাইল নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মুহাম্মদ ফখরুজ্জামান বলেন, কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া পেয়েছেন ১০ হাজার ৫৭ ভোট।

অপরদিকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপি মনোনীত এএফএম আজিজুল ইসলাম পিকুল পেয়েছেন ৬ হাজার ৭৪৯ ভোট।

এই পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র দুই প্রার্থীসহ সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩০ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

রাজশাহীর দুর্গাপুর ও চারঘাটে নৌকা

রাজশাহীর দুর্গাপুর ও চারঘাট পৌরসভা দুইটিতে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থীরা।

রোববার সন্ধ্যায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম এসব ফলাফল জানান।

রাজশাহীর দুর্গাপুর পৌরসভায় তৃতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন তোফাজ্জাল হোসেন।

তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে নৌকা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৮ হাজার ৮২৯টি।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মেয়র প্রার্থী জার্জিস হোসেন সোহেল পেয়েছেন ৬ হাজার ২৭৩ ভোট।

এছাড়াও এ পৌরসভায় স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হাসানুজ্জামান সান্টু (মোবাইল ফোন) এবং জাতীয় পার্টির হুমায়ুন কবীর (লাঙ্গল) প্রার্থী ছিলেন।

এদিকে, প্রথমবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে রাজশাহীর চারঘাট পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন একরামুল হক।

তিনি নৌকা প্রতীকে ১৪ হাজার ৯৮১ ভোট পেয়েছেন।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির মনোনিত জাকিরুল ইসলাম বিকুল পেয়েছেন ২ হাজার ৮১২ ভোট।

চরফ্যাশন পৌরে মেয়র মোরশেদ

ভোলার চরফ্যাশন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যায় রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন ফলাফল ঘোষণা করেন।

চরফ্যাশন পৌর মেয়র পদে মো. মোরশেদ নৌকা প্রতীকে ১৪ হাজার ৯১৮ ভোট পেয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ শরীফ হোসেন নারিকেল গাছ প্রতীকে ৭৮১ ভোট পেয়েছেন।

চরফ্যাশন পৌরসভার ১৭টি কেন্দ্রে ২৭ হাজার ৫৭১ জন্য ভোটারের মধ্যে ৬০ ভাগ ভোট পড়েছে বলে জানান তিনি। 

বগুড়া পৌরসভায় মেয়র বিএনপির রেজাউল করিম

বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী রেজাউল করিম বাদশা জয়ী হয়েছেন।

রোববার রাতে রিটার্নিং কর্মকর্তা বগুড়ার জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্ ফল ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, রেজাউল করিম ধানের শীষ প্রতীকে ৮২ হাজার ২১৭ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মান্নান আকন্দ জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৫৬ হাজার ৯০ ভোট।

চাঁদপুরে মতলব ও শাহরাস্তি পৌরসভায় ফের আ. লীগ জয়ী

চাঁদপুরের মতলব ও শাহরাস্তি পৌরসভায় যথাক্রমে আওলাদ হোসেন লিটন ও আব্দুল লতিফ নির্বাচিত হয়েছেন। দুজনই আওয়ামী লীগের।

জেলা নির্বাচন কমিশনার মো. তোফায়েল আহমদ জানান, মতলব পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী আওলাদ হোসেন নৌকা প্রতীকে ২০ হাজার ৬৯৪ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির এনামুল হক বাদল ৬ দিন আগে নির্বাচন বর্জন করেও পেয়েছেন ৯৭৯ ভোট।

তিনি আরও জানান, শাহরাস্তি পৌরসভায় আব্দুল লতিফ ১২ হাজার ৮৫৫ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক পৌর মেয়র মো. মোস্তফা কামাল পেয়েছেন ৩ হাজার ৯৭৯ ভোট এবং বিএনপির প্রার্থী মো. ফারুক হোসেন মিয়াজী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৯৮০ ভোট।

কেশবপুর পৌরসভায় মেয়র আ. লীগের রফিকুল ইসলাম

যশোরের কেশবপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান মেয়র রফিকুল ইসলাম পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস জানায়, ১১ হাজার ৮৮৮ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন রফিকুল ইসলাম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আব্দুস সামাদ বিশ্বাস পান ২ হাজার ৩১৩ ভোট পেয়েছেন।

প্রথম নারী মেয়র পেলে সৈয়দপুর পৌরসভা

নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভায় প্রথমবার একজন নারী মেয়র নির্বাচিত হয়েছে।

রোববার রাতে নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফজলুল করিম ফল ঘোষণা করেন।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম জানান, আওয়ামী লীগের রাফিকা আখতার জাহান বেবী নৌকা প্রতীকে ২৮ হাজার ২৭৮ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতীদ্বন্দ্বী বিএনপির রশিদুল হক সরকার ধানের শীষে পান ১০ হাজার ৯৭৫ ভোট।

এছাড়া জাতীয় পার্টির সিদ্দিকুল আলম সিদ্দিক লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ৯ হাজার ৬৩৩ ভোট।

গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভায় আ. লীগের রবিন মেয়র

গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত এস. এম. রবীন হোসেন জয়লাভ করেছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, রবিন হোসেন পেয়েছেন ১৩ হাজার ৭৮৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকে পান মো. লুৎফুর রহমান পেয়েছেন ১০ হাজার ২২৫ ভোট।

ভোলা পৌরসভায় টানা ৩য় বার মেয়র মনিরুজ্জামান

ভোলা পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. মনিরুজ্জামান টানা ৩য় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

ভোলার সহকারী রিটার্নিং অফিসার মিজানুর রহমান খান জানান,

মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির হারুন অর রশিদ ট্রুম্যান পেয়েছেন দুই হাজার ৩৪ ভোট।

মাদারীপুরে মেয়র পদে একটানা তিনবার আ. লীগের খালিদ হোসেন

মাদারীপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত খালিদ হোসেন ইয়াদ টানা তৃতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, খালিদ নৌকা প্রতীকে ২২ হাজার ৫৯ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী মো. জাহান্দার আলী মিয়া ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ২৫৬ ভোট। 

জামালপুরে ৩ পৌরসভায় মেয়র আওয়ামী লীগের

জামালপুরের তিন পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীরা জয় পেয়েছেন।

এরা হলেন জামালপুর পৌরসভায় ছানোয়ার হোসেন ছানু, ইসলামপুরে আব্দুল কাদের সেখ ও মাদারগঞ্জ পৌরসভায় মির্জা গোলাম কিবরিয়া কবির।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা জানান, ছানোয়ার হোসেন ছানু ৪৫ হাজার ৫৯৮ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটমত প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন পান ২ হাজার ১৬৫ ভোট।

ইসলামপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের আব্দুল কাদের সেখ নৌকা প্রতীতে পেয়েছেন ১৪ হাজার ১৯১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির রেজাউল করিম ঢালী পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৫১ ভোট।

মাদারগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মির্জা গোলাম কিবরিয়া কবির পান ১৩ হাজার ৩৬০ ভোট। তার নিকটমত প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আব্দুল গফুর পেয়েছেন ১ হাজার ৬৩ ভোট।

যেসব পৌরসভায় ভোট

চট্টগ্রামের মীরসরাই, বারইয়ারহাট ও  রাঙ্গুনিয়া; জামালপুর সদর, মাদারগঞ্জ ও ইসলামপুর; রাজশাহীর চারঘাট ও দুর্গাপুর; ভোলা সদর ও চরফ্যাশন; চাঁদপুরের মতলব ও শাহরাস্তি; ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ ও মহেশপুর;  লক্ষ্মীপুরের রায়পুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল, হবিগঞ্জ সদর,  বগুড়া সদর, মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর, কিশোরগঞ্জের ভৈরব, যশোরের কেশবপুর, মাদারীপুর সদর, রংপুরের হারাগাছ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, জয়পুরহাট সদর, মাদারীপুরের শিবচর, ময়মনসিংহের নান্দাইলও গাজীপুরের কালীগঞ্জ এবং নীলফামারীর সৈয়দপুর।