সিরাজগঞ্জে লুটের মামলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

সিরাজগঞ্জের এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগে মামলা হয়েছে।

বুধবার রাতে সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের হাটসারটিয়া গ্রামের প্রয়াত আব্দুল মান্নানের ছেলে বাবু বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন বলে সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রফিকুল ইসলাম জানান।

মমালায় সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলাম ও তার ভাই ইউপি সদস্য আব্দুল মোমিনসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, গত ২৫ জুলাই রাতে চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলাম দেশি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হাটসারটিয়া গ্রামে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগাম প্রচারনা চালাতে যান।

অভিযোগে বলা হয়, এই সময় স্থানীয়রা প্রতিবাদ করলে উভয়পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ অবস্থায় চেয়ারম্যান নবীদুল ইসলাম ও তার ভাই ইউপি সদস্য আব্দুল মোমিনের নেতৃত্বে অন্তত ১০টি বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর এবং বেশ কয়েকজন নারী-পুরুষকে মারপিট করা হয়।

হামলাকারীরা বসতঘরে ঢুকে টিভি-ফ্রিজ, আলমারিসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং নগদ টাকা ও সোনার গহনা লুট করে নিয়ে যায় বলে মামলায় বলা হয়।

এছাড়া যাওয়ার পথে তারা একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে যায় এবং একটি মোটসাইকেল ভাংচুর করে রেখে যায় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনার সময় মারপিটে ইউপি সদস্য আব্দুল মোমিনও আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় তার স্ত্রী শিল্পী খাতুন বাদী হয়ে ৩৩ জনের বিরুদ্ধে একই দিন আরেকটি মামলা দায়ের করেছেন।

উভয় মামলার তদন্ত চলছে; তদন্তপূর্বক আসামিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।