ঝালকাঠিতে গৃহবধূ খুন, স্বামী পলাতক

ঝালকাঠিতে বাড়ির পাশের ডোবা থেকে এক গৃহবধূর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত পারভিন আক্তার (২৫) সদর উপজেলার বেরমহল গ্রামের তানজিল হাওলাদারের স্ত্রী।

বুধবার সকালে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে জানান সদর থানার ওসি মো. খলিলুর রহমান।

তিনি বলেন, গৃহবধূর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে পিটিয়ে ও গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার স্বামী পলাতক রয়েছেন।

ওসি খলিলুর রহমান এলাকাবাসীর বরাতে বলেন, এক বছর ধরে স্বামী ও শাশুড়ির সঙ্গে বিরোধ চলছিল ওই গৃহবধূর। মাস খানেক আগে তিনি দেড় বছর বয়সী মেয়েকে নিয়ে ঢাকায় চলে যান। কিছুদিন আগে তিনি জানতে পারেন তার স্বামী তাকে তালাক দিয়েছেন।

“মঙ্গলবার সকালে তিনি স্বামীর বাড়ির পাশের একটি ঘরে ওঠেন। বুধবার সকালে ওই ঘরের পাশের একটি ডোবা থেকে তার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পারিবারিক বিরোধের জেরে রাতে পারভিনকে ডেকে নিয়ে তার স্বামী হত্যা করে পালিয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।”

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান ওসি খলিলুর রহমান।