ফেনীর মহাসড়কে লরির চাপায় প্রাণ গেল ৩ শ্রমিকের

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় লরির চাপায় পথচারী তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

বৃহস্পতিবার রাতে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার মুহুরীগঞ্জ নতুন সমিতি বাজার এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে মুহুরীগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মুনিরুল ইসলাম ভূঁইয়া জানিয়েছেন।

নিহতরা হলেন- জামালপুর জেলার সদর উপজেলার ভাদ্রীপাড়া এলাকায় মোতালেব হোসেনের ছেলে মোশারফ হেসেন (২২), যুগারপাড়া এলাকার আবদুল কুদ্দুসের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪৫) এবং ভাতৃপাড়া এলাকার আবদুল মালেকের ছেলে সাজু (২২)।

তারা সবাই ফেনীর নিজকুঞ্জরা বিসিক শিল্পনগরীর একটি জুতা কারখানার শ্রমিক।

দুর্ঘটনার পর লরি চালক মহিউদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি নোয়াখালী জেলার মাইজদী সদর এলাকার এনায়েত উল্লাহর ছেলে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পরিদর্শক মুনিরুল জানান, বৃহস্পতিবার রাতে কারখানার কাজ শেষে সাজু গ্রামের বাড়ি যাওয়ার জন্য মহাসড়কে আসেন। তাকে এগিয়ে দিতে আসেন আরও চার সহকর্মী।

“চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী দ্রুতগতির একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ওই পাঁচজনকে চাপা দেয়। তাতে ঘটনাস্থলে জহিরুল, মোশারফ ও সাজু নিহত হন।”

এ সময় তাদের সাথে থাকা অপর দুই সহকর্মীও আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পাশের চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার বারইয়ার হাটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায় বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা মুনিরুল।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পর লরির চালক পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। লরিটি জব্দ করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় একটি মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।