নোয়াখালীর ঘটনায় আরও তিন আসামি রিমান্ডে

নোয়াখালীতে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলায় আরও তিন আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় আরও ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতবিার দুপুরে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সোনিয়া আক্তার রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে পাঠানো আসামিরা হলেন- সোহরাব হোসেন, হরুনুর রশিদ ও মো. এন।

এ নিয়ে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলায় ১৪ আসামির বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করল আদালত।

এদিকে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে আরও ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে শহীদুল ইসলাম জানান।

এরা হল- বেগমগঞ্জ উপজেলার গণিপুরের নুরুল হকের ছেলে আব্দুর রহিম (৪০), করিমপুরের বশির উল্যাহর ছেলে বাহারল আলম সুমন (৪২), আব্দুল দুলালের ছেলে মো. হেলাল (২৫), আলীপুরের মফিজুর রহমানের ছেলে মো. আরিফ (২১), হাজিপুরের মৃত জালাল আহমেদের ছেলে বেলাল হোসেন (৫৫) ও কবিরহাট উপজেলার জৈনদপুর গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে জালাল উদ্দিন জুয়েল (১৯)।

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা: নোয়াখালীর কমলের জবানবন্দিতে ‘বুলুসহ ১৫ নেতার নাম’: পুলিশ  

নোয়াখালীর মন্দিরে-মণ্ডপে হামলা: আরও ১৩ গ্রেপ্তার  

নোয়াখালীর মন্দিরে-মণ্ডপে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেপ্তার আরও ১১  

নোয়াখালীতে মন্দির-মণ্ডপে হামলায় গ্রেপ্তার আরও ৪  

পূজামণ্ডপে হামলা: নোয়াখালী যুবদল সভাপতি গ্রেপ্তার  

এসপি বলেন, সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় মিছিলের ভিডিও ফুটেজ দেখে এবং গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তাদের শনাক্ত করা হয়। এর মধ্যে সুমন হামলা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। জিজ্ঞাসাবাদে সে চৌমুহনীতে বিভিন্ন মন্দিরে হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। সহিংসতার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুপুরে তাদেরকে আদালতে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

দুর্গাপূজার মধ্যে গত ১৪ ও ১৫ অক্টোবর নোয়াখালীর বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায়  দায়ের করা ২৯ মামলায় ২১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে ৫ আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে জানান তিনি।