গাইবান্ধায় মাকে হত্যার দায়ে ছেলের ফাঁসির আদেশ 

গাইবান্ধায় মাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জেলা ও দায়রা জজ দিলীপ কুমার ভৌমিক এই রায় দেন।

দণ্ডিত মো. জিয়াউল হক (৪৩) সদর উপজেলার শিবপুর গ্রামের নুরুল ইসলাম খন্দকারের ছেলে।

মামলার বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি ফারুক আহম্মেদ বলেন, ২০১৮ সালের ১২ জুন জিয়াউল হক তার ছোট ভাই জোবায়ের খন্দকারের কাছে টাকা চান। ছোট ভাই টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় জিয়াউল হক ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে জোবায়েরকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারতে যান।

এ সময় তার মা জহুরা বেগম বাধা দিতে গেলে জিয়াউল তাকে মারধর করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন।

পরে স্থানীয় লোকজন জহুরা বেগমকে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপালে ভর্তি করান। সেখানে তার অবস্থা অবনতি হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জহুরা বেগম ওইদিন রাতেই মারা যান।

এই ঘটনায় নিহতের স্বামী নুরুল ইসলাম খন্দকার বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পিপি ফারুক আরও জানান, আসামিকে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখার আদেশ দেওয়া হয়েছে।