কক্সবাজারে ‘বিজয় মিছিলে হামলায়’ একজন নিহত

ঠাকুরগাঁওয়ে নির্বাচনের ফল ঘোষণার সময় ভোটকেন্দ্রে হামলা, ভাঙচুর ও সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা ঘটে
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয়ী প্রার্থীর আনন্দ মিছিলে পরাজিত স্বতন্ত্র  প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের হামলায় কক্সবাজারে একজন নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জেলার চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের হাফেজখানা সড়কে রোববার রাতে তারা হতাহত হন বলে চকরিয়া থানার ওসি ওসমান গনি জানান।

নিহত গিয়াস উদ্দিন মিন্টু (৪৫) ওই ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ঢেমুশিয়া পাড়ার আবুল মকসুদের ছেলে।

গিয়াস নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নুরে হোছাইন আরিফের ভাগ্নে।

ওসি ওসমান প্রাথমিক তদন্তের তথ্যে বলেন, রোববার সন্ধ্যারাতে বিজয়ী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের আনন্দ মিছিল বের হলে পরাজিত একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন হামলা চালঅয়। এতে গিয়া নিহত হন।

তাছাড়া কয়েকজন আহত হয়েছে বলে জানালেও তিনি তাদের পরিচয় বলতে পারেননি।

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বলেন, “মনোনয়ন বঞ্চিত আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হেফাজ সিকদারের শতাধিক কর্মি-সমর্থক মিছিলে হামলা চালায়। এতে গিয়াস উদ্দিন মিন্টু নিহত হয়।”

তাছাড়া পাঁচ-ছয়জন আহত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আহতদের চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ঠাকুরগাঁওয়ে ভোটের ফল ঘোষণার সময় হামলা-ভাঙচুর, গুলিতে প্রাণহানি  

এ বিষয়ে তিনি চকরিয়া থানায় মৌখিকভাবে অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানান।

ওসি ওসমান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে মামলা নথিবদ্ধ করা হবে। তার পরও ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে পুলিশ গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হেফাজ সিকদারের মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি সাড়া দেননি।

রোববার তৃতীর্থ ধাপের  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী সংঘাতে বিজিবি সদস্যসহ কয়েক জায়গায় কয়েকজন নিহত হয়েছেন। তাদের শুধু নরসিংদী জেলায় নিহত হয়েছেন তিনজন।