বাবা-মায়ের পর মেয়ে হলেন কৃষ্ণনগরের চেয়ারম্যান

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলায় কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাবা-মায়ের পর এবার মেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন।

তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রোববারের ভোটে জাতীয় পার্টির প্রার্থী সাফিয়া পারভীন এই জয় পান।

২০১৮ সালের ৮ সেপ্টেম্বর তার বাবা মোশাররফ হোসেন গুলিতে নিহত হন। পরে উপ-নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়ে ইউনিয়নটির চেয়ারম্যান হন তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন লাকী।

সাফিয়া পারভীন বলেন, এবারের নির্বাচনে তারা মা-মেয়ে দুইজনই মনোনয়নপত্র জমা দেন। পরে তার মা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

ভোটে সাফিয়া সাত হাজার ২৩৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন বলে জানান কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, সাফিয়ার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকের জিএম রবিউল্লাহ বাহার পেয়েছেন ছয় হাজার ৮৭৫ ভোট। অপর প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের শ্যামলী রানি অধিকারী পেয়েছেন ৩৮৫ ভোট। সাফিয়া ৩৬৩ ভোট বেশি পেয়ে জয়লাভ করেন। তাকে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে।

সাফিয়া জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য।

রাজনীতিতে তার সংশ্লিষ্টতা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, “আমি মানুষের কল্যাণে জীবন উৎসর্গ করেছি। আজীবন মানুষের মধ্যে থাকতে চাই।”