নোয়াখালীতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নিহত, সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ

নোয়াখালীতে ট্রাকচাপায় এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এতে ক্ষুব্ধ সহপাঠীরা সড়ক অবোধ করার পাশাপাশি শহরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছে।

নিহত অজয় মজুমদার (২২) নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন সায়েন্স অ্যান্ড লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র ছিলেন। জেলার সুবর্ণচর উপজেলার চরবাটা এলাকার বাদলচন্দ্র মজুমদারের ছেলে তিনি।

সুধারাম থানার ওসি সাহেদ উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে অজয় অটোরিকশায় করে সোনাপুর যান। অটোরিকশা থেকে নামার সময় পেছন থেকে এসে একটি ট্রাক তাকে চাপা দেয়। স্থানীয়রা তাকে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সোনাপুর-মাইজদী সড়ক অবোধ করে রাখেন। তাছাড়া তারা সোনাপুর জিরোপয়েন্ট ও নোয়াখালী টাউন হলের মোড়সহ শহরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেন।

খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. দিদার-উল-আলম, জেলার ডিসি মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান, পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম গিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে প্রশাসনের সান্ত্বনা ও বিচারের আশ্বাসে শিক্ষার্থীরা ফিরে যান।

উপাচার্য মো. দিদার-উল-আলম বলেন, “মেধাবী এ শিক্ষার্থীর অকালপ্রয়াণ আমাদের সবার জন্য অত্যন্ত কষ্ট ও বেদনার। এতে একটা সম্ভাবনার মৃত্যু ঘটল। তার পরিবারের সদস্যদের জন্য এ শোক সহ্য করা কঠিন।“