জাহিন নিটওয়্যার্সে আগুন: তল্লাশি শেষ করেছে ফায়ার সার্ভিস

নারায়ণগঞ্জের বন্দরের মদনপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় শুক্রবার বিকালে আগুনে পুড়ে গেছে জাহিন নিটওয়্যার্স কারখানার চারটি ভবন। ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
নারায়ণগঞ্জের বন্দর এলাকায় জাহিন নিটওয়্যার্স পোশাক কারখানার পুড়ে যাওয়া চারটি ভবনে তল্লাশির কাজ শেষ করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স।

শনিবার সকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স নারায়ণগঞ্জ স্টেশনের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আরেফিন গণমাধ্যমকে বলেন, “আগুন নেভানো শেষে ওই কারখানার চারটি ভবনে তল্লাশি কাজও শেষ করেছে আমাদের কর্মীরা। এখানে কোনো হতাহত পাওয়া যায়নি। এখানে কর্মরত কেউ নিখোঁজ আছেন এমন অভিযোগও করেননি কোনো স্বজন।”  

“আগুনে ওই কারখানার বিপুল কাপড়সহ মালামাল পুড়ে গেছে”, যোগ করেন আব্দুল্লাহ্।

শুক্রবার বিকেলে ওই কারখানার চার ভবনে আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের ১৩টি ইউনিট সাড়ে চার ঘণ্টার চেষ্টায় রাত সাড়ে ৯টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে কী কারণে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে জানতে চাইলে ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক বলেন, “এটি তদন্ত ছাড়া বলা সম্ভব হবে না। কারণ, আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে এক সঙ্গে চার ভবনেই আগুন দেখতে পেয়েছে। তদন্তের পর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা যাবে কী কারণে আগুন লেগেছে।”

তিনি আরও বলেন, “আগুনে স্টিলের কাঠামোর ভবনগুলো বাঁকা হয়ে দুমড়ে-মুচড়ে গেছে।”

বন্দর উপজেলার মদনপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অলিম্পিক বিস্কুট ফ্যাক্টরির উল্টো দিকেই জাহিন নিটওয়্যার্স কারখানা কমপ্লেক্স। ভেতরে ছয়টি ভবনে নিটিং, ডায়িং, গার্মেন্টস, অ্যাম্ব্রয়ডারি, প্রিন্টিংসহ মোট ছয়টি ইউনিট।

জামালউদ্দিন গ্রুপের মালিকানাধীন জাহিন নিটওয়্যার্সের এই কারখানা চালু হয়েছিল ২০০৭ সালে। সব মিলিয়ে হাজার খানেক কর্মী সেখানে কাজ করলেও শুক্রবার ছুটির দিনে বেশিরভাগ ইউনিট ছিল বন্ধ।