কোমর পানিতে শাক তুলতে গিয়ে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলায় নেতাই নদী থেকে নিখোঁজ এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার সকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবরি দল লাশটি উদ্ধার করে বলে দুর্গাপুর থানার ওসি শিবিরুল ইসলাম জানান।

নিহত হাসেম মিয়া (২৫) উপজেলার গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের বাসিন্দা সাহেব আলীর ছেলে।

পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে নেতাই নদীর পানি বেড়েছে। শনিবার সকালে হাসেম কোমর পানিতে নেমে পাট শাক তুলছিলেন। কিছুক্ষণ পর তিনি নিখোঁজ হন। পরে পরিবারের লোকজন তার খোঁজে তল্লাশি চালায়। না পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। তিনি মৃগী রোগী ছিলেন বলে পরিবার জানায়।  

রোববার সকালে দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের স্টেশন অফিসার শফিকুল ইসলাম ময়মনসিংহ থেকে আগত ডুবরি দলকে সঙ্গে নিয়ে নদীতে প্রায় দুই ঘণ্টা তল্লাশি চালিয়ে লাশ উদ্ধার করেন।

অভিযোগ না থাকায় লাশটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান ওসি।