পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

পরের বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে চ্যাম্পিয়ন দেখছেন আফ্রিদি

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-12 14:26:16 BdST

bdnews24

ট্রফি জয়ের স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বকাপে গিয়ে শেষ ফয়সালার মঞ্চেই উঠতে পারেনি পাকিস্তান। তবে বাবর আজমের এই দলটার ভেতর সম্ভাবনার ঝলকানি ঠিকই দেখতে পেয়েছেন শহিদ আফ্রিদি। পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী তারকার বিশ্বাস, এই দলটি আগামী বছরই বিশ্বকাপ জিততে পারে।

বিশ্বকাপ জয়ী দলের রসায়ন আফ্রিদি জানেন ভালো করেই। ২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন ইউনুস খানের পাকিস্তান দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন এই অলরাউন্ডার। সেমি-ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ও ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন আফ্রিদিই।

ওই আসরের পর আর বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে পারেনি পাকিস্তান। এবার বাবর আজমের দল আশা দেখায় দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে। ম্যাচের পর ম্যাচ ধারাবাহিকতা ধরে রেখে উজ্জীবিত পারফরম্যান্সে একমাত্র অপরাজিত দল হিসেবে তারা পা রাখে সেমি-ফাইনালে। শেষ চারের লড়াইয়েও অনেকটা সময় ধরে সম্ভাবনা জিইয়ে রেখে শেষ পর্যন্ত তারা হেরে যায় অস্ট্রেলিয়ার কাছে।

তবে এই হারেই সবকিছুর শেষ দেখছেন না আফ্রিদি। টুইটারে তিনি বাবরদের সামনে মেলে ধরলেন উজ্জ্বল আগামীর ছবি।

“দারুণ লড়াই ছেলেরা, আমাদের গর্বিত করেছো। টুর্নামেন্ট জুড়ে দারুণ প্রচেষ্টার ছাপ রেখেছো। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও ভালো খেলেছো। আমার সত্যিই মনে হয়, এই দল আগামী বছর বিশ্বকাপ জিততে পারে। আমাদের সবার উচিত এই দলের পাশে থাকা।”

সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল-হক অবশ্য মনে করেন, এবারই চ্যাম্পিয়নের মতো খেলেছে দল।

“গোটা টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন দলের মতোই খেলেছে পাকিস্তান। তরুণ এই দলটি আমাদের গর্বিত করেছে এবং বিশ্বজুড়ে অনেক নতুন সমর্থক পেয়েছে।”

আরেক সাবেক অধিনায়ক ও পিসিবির এখনকার চেয়ারম্যান রমিজ রাজা ম্যাচের আগে বলেছিলেন, নিজেদের মতো খেলতে পারলে এই দলকে হারানো প্রায় অসম্ভব। অস্ট্রেলিয়া সেটি সম্ভব করেছে ঠিকই। তবে দলের পারফরম্যান্সে গর্বের উপকরণ পাচ্ছেন রমিজও।

“তোমরা সত্যিকার অর্থেই দেশকে একতাবদ্ধ করেছো এবং প্রতিশ্রুতির ঝংকারে সবাইকে চনমনে করেছো। তোমাদেরকে ধন্যবাদ জানাই এবং যেভাবে তোমরা লড়েছো, তাতে আমরা গর্বিত। ওয়েল ডান বয়েজ।”

১৯৯২ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের রূপকথাময় জয়ের অধিনায়ক ও দেশের এখনকার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও অনুপ্রাণিত করলেন দলকে।

“বাবর আজম ও দলকে বলছি, আমি পুরোপুরি জানি তোমাদের সবার এখন কেমন লাগছে। কারণ ক্রিকেট মাঠে এরকম হতাশার মুখোমুখি আমিও হয়েছি। তবে মানের ক্রিকেট তোমরা খেলেছো এবং জয়ের পর যেভাবে মাটিতে পা রেখেছো, তাতে তোমাদের গর্বিত হওয়া উচিত। অভিনন্দন অস্ট্রেলিয়াকে।”