পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

টস হারতে চেয়েছিলেন ফিঞ্চ!

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-13 23:45:15 BdST

bdnews24
অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ছবি: আইসিসি

বিশ্বকাপের ফাইনালে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে টস। তবে এ নিয়ে মোটেও ভাবছেন না অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। কথা প্রসঙ্গে এমনকি এটাও বললেন, সেমি-ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে নাকি টস হারতে চেয়েছিলেন তিনি!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা লড়াইয়ে রোববার মুখোমুখি হবে তাসমান সাগর পাড়ের দুই দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউ জিল্যান্ড। দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়।

দুই দিন আগে একই মাঠে দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। সেদিন টস জিতে ফিঞ্চ নিয়েছিলেন বোলিং। ১৭৬ রান তাড়ায় শেষ পাঁচ ওভারে ৬২ রানের কঠিন সমীকরণ তারা মেলায় এক ওভার বাকি থাকতে।

দুবাইয়ে সুপার টুয়েলভ থেকে সেমি-ফাইনাল পর্যন্ত ১২ ম্যাচের ১১টিতেই জিতেছে পরে ব্যাটিং করা দল। ব্যতিক্রম কেবল স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে নিউ জিল্যান্ডের ১৬ রানে জয়ের ম্যাচ।

ফিঞ্চের সংবাদ সম্মেলনে শনিবার তাই প্রশ্ন ছিল, দুবাইয়ে টস যেহেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে, আগে ব্যাটিং পেলে তাদের ব্যাটিংয়ের ধরন বদলাবে কি-না? অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক জানান নিজের ভাবনা।

“আমার মনে হয় টুর্নামেন্টের কোনো এক পর্যায়ে, সপ্তাহ দুয়েক আগে আমি এটা বলেছিলাম (টস গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে), প্রথমে ব্যাটিং করা দল জিততে পারে। এটা ঠিক যে এই টুর্নামেন্ট যেভাবে এগিয়েছে এবং আইপিএলে যা দেখা গেছে, সব মিলিয়ে রান তাড়ায় সাফল্য মেলার সম্ভাবনা বেশি।”

“তবে হ্যাঁ, আগামীকাল আমাদের কী করতে হবে, তা নিয়ে আমি খুব বেশি ভাবছি না। আমার তো মনে হয় সবশেষ ম্যাচে আমি টস হারার আশাই করেছিলাম, যাতে আগে ব্যাট করতে হয়। প্রথমে ব্যাট করলেও আমি কিছু মনে করতাম না।”

তবে টস জিতলে যে আগে বোলিং করাটাই বেছে নেবেন, সেটাও পরিষ্কার করেন ফিঞ্চ। যেমনটা নিয়েছিলেন পাকিস্তানের বিপক্ষে।

“আমি টস জিতেছিলাম…তবে আমি মনে করি, আগে ব্যাট করে স্কোরবোর্ডে যথেষ্ট রান তুলতে পারলে, রান তাড়ায়ও প্রতিপক্ষের ওপর অনেক চাপ তৈরি করা যায়।”

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আগের ছয় ফাইনালের পাঁচটিতেই শিরোপা উৎসব করেছে টস জয়ী দল। ব্যতিক্রম কেবল ২০০৯ সালে দ্বিতীয় আসর। সেবার টস হেরেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল পাকিস্তান।