পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

বিশ্বকাপে দলের পারফরম্যান্সে গর্বিত নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক

  • দুবাই থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-15 04:48:50 BdST

bdnews24

২০১৫ ও ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালের পর এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে হার….প্রশ্ন শেষ করার আগেই কেন উইলিয়ামসন মনে করিয়ে দিলেন মাঝে তারা জিতেছেন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। পরে প্রশ্ন শুনলেন মনোযোগ দিয়েই এবং বললেন, এই পরাজয়ে মোটেও ভেঙে পড়ছেন না তারা। বরং বিশ্বকাপে নিজেদের খেলা নিয়ে গর্বিত নিউ জিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।

ছয় বছরের মধ্যে তিনটি বিশ্বকাপের ফাইনালে হার, যে কোনো দলের জন্যই বড় ধাক্কা। বিশেষ করে কখনও এসব টুর্নামেন্টে শিরোপা না জেতা দলের জন্য। সবচেয়ে বড় আঘাত হয়তো ২০১৯ বিশ্বকাপেই পেয়েছে নিউ জিল্যান্ড। মূল ম্যাচ ও সুপার ওভারও টাই হওয়ার পর দলটি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেরেছিল বাউন্ডারি কম মারায়।

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে রোববারের ফাইনাল অবশ্য ছড়ায়নি তেমন কোনো উত্তেজনা। বেশ আগেই ম্যাচের ফল নিয়ে অনিশ্চয়তা দূর করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচ শেষে অনেকক্ষণ ধরে টুর্নামেন্ট সেরা ও আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ সতীর্থ ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় উইলিয়ামসনকে।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ও সংবাদ সম্মেলনে নিজের মতোই ছিলেন নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক। হার মেনে নিয়ে প্রাপ্য কৃতিত্ব দিলেন প্রতিপক্ষকে। নিজেদের অর্জনগুলোকে দেখালেন বড় করে।

“আমাদের কাজই খেলা। খেলতে গেলে হার-জিত থাকবেই। হারের মতো ধরনের ব্যাপার যে কোনো দিনই ঘটতে পারে।”

“পুরো টুর্নামেন্টে আমরা যেমন ক্রিকেট খেলতে পেরেছি, এর জন্য আমরা গর্বিত। ফাইনালে যে কোনো কিছুই হতে পারে। ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালের কথা এসেছে, যদি সময় থাকে, এ নিয়ে লম্বা আলোচনা হতে পারে। আজ আমরা ভালো ক্রিকেট খেলেছি। তবে শেষ পর্যন্ত তা যথেষ্ট ভালো ছিল না। কিন্তু ব্যাপারগুলো এভাবেই হয়ে থাকে।”

দুই সংস্করণ মিলিয়ে বিশ্বকাপের সবশেষ চার আসরের তিনটিতেই ফাইনালে খেলা কম কথা নয়। সঙ্গে আছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম আসরের শিরোপা জয়ের কীর্তি। সব মিলিয়ে নিউ জিল্যান্ডের ধারাবাহিকতার বড় ছবিটাই দেখালেন উইলিয়ামসন।

“এই ধরনের প্রতিযোগিতায় জিততে আমরা এখনও একটি দল তৈরি ও সেটাকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। আমরা ফল চাই, যেমনটা চায় অন্য অনেক দলও। চূড়ান্ত লড়াইয়ের দিনে যে কোনো কিছুই হতে পারে। আমরা গ্রুপ পর্ব থেকেই দেখেছি, এই প্রতিযোগিতা কতটা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। এমন অনেক দলই রয়েছে যাদের এই শিরোপা জেতার সামর্থ্য আছে। আমাদের দল শিরোপা জিততে যেভাবে চেষ্টা করেছে তাতে আমি গর্বিত।”

“সব দলই শক্তিশালী। প্রতিদিন পুরোপুরি সম্পৃক্ত থেকে নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলে যেতে হয়। এই প্রতিযোগিতায় আমরা পুরোটা জুড়েই ভালোভাবে মানিয়ে নিতে পেরেছি। ফাইনালের অংশ হতে পারে দারুণ ব্যাপার। জিততে পারলে অবশ্যই আরও ভালো হতো।”