পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

এশিয়ার ‘গভর্নর অব দ্য ইয়ার’ আতিউর

  • আবদুর রহিম হারমাছি,লিমা (পেরু)  থেকে, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2015-10-10 23:09:45 BdST

bdnews24

যুক্তরাজ্যের অর্থ-বাণিজ্যের সাময়িকী ইমার্জিং মার্কেটসের বিচারে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের ‘গভর্নর অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশের আতিউর রহমান।

শনিবার সকালে পেরুর রাজধানী লিমায় বিশ্ব ব্যাংক-আইএমএফের বার্ষিক সভা চলাকালে এ পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের নাম ঘোষণা করা হয়।

বাংলাদেশের আর্থিক খাতে ‘বিশেষ অবদানের’ জন্য আতিউর রহমানকে  এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।

ইমার্জিং মার্কেটস বলছে, বিশ্ব মন্দার মধ্যেও বাংলাদেশে ‘স্থিতিশীল অর্থনীতি’ বজায় রাখতে সাফল্যের পাশাপাশি  ব্যাংকিং খাত উন্মুক্ত করা, গ্রিন ব্যাংকিং এবং সিএসআর (সামাজিক দায়বদ্ধতা) কার্য‌ক্রমে  উৎসাহ দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন আতিউর।

আতিউর রহমান লিমায় তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এটি আমার একক সাফল্য নয়, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতকে বিশ্ববাসীর নজরে আনার কারণেই এই পুরস্কার।”

সন্ধ্যায় এক অনুষ্ঠানে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের ‘গভর্নর অব দ্য ইয়ার’ এবং অর্থমন্ত্রীদের মধ্যে এ পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

গত বছর এশিয়া অঞ্চলের ‘গভর্নর অব দ্য ইয়ার’ হয়েছিলেন রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার রঘুলাম রাজন। ২০১৩ সালে এ পুরস্কার পেয়েছিলেন চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নর জু জিয়াচুন।

গত জানুয়ারিতে লন্ডনভিত্তিক প্রভাবশালী পত্রিকা দি ফাইন্যান্সিয়াল টাইমসের ব্যাংক ও অর্থনীতি বিষয়ক ম্যাগাজিন ‘দ্য ব্যাংকার’ এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল থেকে আতিউর রহমানকে ২০১৫ সালের ‘সেন্ট্রাল ব্যাংকার অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করে।

২০০৯ সালের ১ মে বাংলাদেশ ব্যাংকের দশম গভর্নর হিসাবে চার বছরের জন্য দায়িত্ব নেন আতিউর। এরপর তাকে আরও এক মেয়াদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এ দায়িত্বে রাখার সিদ্ধান্ত  নেয় সরকার।

১৯৫১ সালে জন্মগ্রহণকারী আতিউর রহমান কর্মজীবনে ব্যাংক ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষক হিসাবে কাজ করেছেন।

প্রকৃতিপ্রেমী ও সংস্কৃতিমনা এই অর্থনীতিবিদ দরিদ্র জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক উন্নয়ন, পরিবেশবান্ধব অর্থনীতি নিয়েও কাজ করেছেন দীর্ঘদিন।

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং ক্ষুদ্রঋণ বিপ্লব নিয়ে বহু গবেষণামূলক লেখা রয়েছে তার।