আবহাওয়ার উন্নতি হতে পারে বুধবার

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-04-24 13:07:17 BdST

bdnews24

একদিকে পশ্চিমা, অন্যদিকে পূবালী লঘুচাপের সংঘাতে কয়েক দিন ধরে সারা দেশে আবহাওয়ার যে বিচিত্র আচরণ চলছে, বুধবার থেকে তার উন্নতি হতে পারে বলে আভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আশা করি পূবালী ও পশ্চিমা লঘুচাপের সংমিশ্রন বুধবার থেকে কেটে যাবে, এতে বৃষ্টি কমবে।”

এবার মওসুমের আগেই তুলনামূলক বেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। সেই সঙ্গে চলছে কালবৈশাখী।

ঝড়ো হাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় সমুদ্র বন্দরগুলোতে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল রেখেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পাশাপাশি কালবৈশাখীর পূর্বাভাস থাকায় নদী বন্দরগুলোতে দেখাতে বলা হয়েছে দুই নম্বর সতর্কতা সংকেত।

গত শুক্রবার থেকে ঢাকাসহ সারা দেশেই মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টি চলছে। ঝড়-বাদলের মধ্যে রোববার ঢাকার আকাশে কুয়াশার মতো মেঘ অনেক নিচে নেমে এলে কৌতূহলী সৃষ্টি হয়।

এরপর রাতে এবং সোমবার সকালে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে কয়েক দফা কালবৈশাখী হানা দেয়।

সকাল ৮টা এবং বেলা ১১টায় দুই দফা হঠাৎ সূর্য ঢেকে দিয়ে মেঘের গর্জন আর তুমুল বাতাসের সঙ্গে ভারি বৃষ্টিতে নাকাল হতে হয় রাস্তায় নামা মানুষকে।

আব্দুল মান্নান বলেন, “পূবালী ও পশ্চিমা লঘুচাপের মিশেলে মওসুমের আগেই একটু বেশি বৃষ্টি হচ্ছে। এটা ব্যাতিক্রম হলেও অস্বাভাবিক বলা যাবে না। বেশ কিছু বছর পরপর এমন আবহাওয়ার দেখা মেলে।”

রাজধানীতে সকাল ৬টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ২১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এ সময় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে পটুয়াখালী ও কুতুবদিয়ায়, ৬২ মিলিমিটার।

সোমবারের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।