পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

লাইভ: খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায়

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-02-08 08:52:15 BdST

# দেশজুড়ে রাজনৈতিক উত্তাপ আর জনমনে উদ্বেগের মধ্যে বৃহস্পতিবার সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় দিয়েছে আদালত।

খালেদা জিয়ার রায় নিয়ে লাইভ ব্লগ শেষ হচ্ছে। সবাইকে ধন্যবাদ!

...

টা ১৩ মিনিট

[খালেদা কারাগারে]

* দুর্নীতিতে দোষী সাব্যস্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগার ভবনে।

* সাবেক স্বৈরশাসক এইচ এম এরশাদের পর খালেদা জিয়া হলেন বাংলাদেশের দ্বিতীয় সরকারপ্রধান, যাকে দুর্নীতি মামলায় কারাগারে যেতে হল।

টা ১১ মিনিট

[আপিলে রায় পক্ষে পাওয়ার আশা বিএনপির]

* বিএনপির আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, “নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য ফরমায়েশি রায় হয়েছে। আমরা উচ্চ আদালতে যাব ইনশাল্লাহ। আশা করি, সেখানে বিচার পাব। ”

টা ১০ মিনিট

[রাষ্ট্রপক্ষের সন্তোষ]

* আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, দেশে আইনের শাসন আছে এবং কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নন- এই রায়ে তা প্রমাণ হল।
 
* সচিবালয়ে নিজের দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, “আমি যতদূর জানি উকিল হিসেবে, আজকেই উনার কারাগারে যেতে হবে। রায়ের সার্টিফাইড কপি পাওয়ার পরে তারা আপিল করতে পারে এবং সেখানে আপিল করার সাথে সাথে তারা বেইল পিটিশনও দিতে পারে।”
 
* রায় ৬৩২ পৃষ্ঠার হওয়ায় বৃহস্পতিবার রায়ের সার্টিফাইড কপি পাওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই বলে জানান আইনমন্ত্রী।

 

২টা ৫৫ মিনিট

(খালেদাকে নেওয়া হচ্ছে কারাগারে)

* আদালতের রায়ের পর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নেওয়া হচ্ছে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগার ভবনের দিকে।

* দুপুরের পর থেকেই পুরনো কারাগার ভবনের সামনের নিরপত্তা বাড়ানো হয়েছিল। বিপুল সংখ্যক পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি আছে সেখানে। ওই সড়কের আশপাশের দোকানপাট ও যান চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

* রায়ে সাজা হলে পুরনো কারাগারের চার তলা ভবনের ‘শিশু ডে কেয়ার’ এর নিচতলা বা দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষে তাকে রাখা হতে পারে বলে আগেই আভাস পাওয়া গিয়েছিল কারা কর্মকর্তাদের কাছ থেকে।

২টা ৩২ মিনিট

(যার যা সাজা)

* জিয়া এতিমখানা ট্রাস্টের নামে আসা দুই কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের দায়ে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

* খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদকে দেওয়া হয়েছে দশ বছর করে কারাদণ্ড।

* সেই সঙ্গে তাদের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার করে জরিমানা করেছেন বিচারক।

* এই রায় এসেছে ফৌজদারি দণ্ডবিধির ৪০৯ ধারায়, ক্ষমতায় থেকে অর্থ আত্মসাতের মাধ্যমে ‘অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গের’ কারণে।

* বয়স ও সামাজিক মর্যাদার কথা বিবেচনা করে তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

২টা ৩১ মিনিট

ব্রেকিং!

* সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াসহ ছয় আসামি জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত।

২টা ১৬ মিনিট

[রায় পড়ছে আদালত]

* সকাল থেকে দীর্ঘ অপেক্ষার পর বেলা সোয়া ২টায় জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণা শুরু করেছে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আখতারুজ্জামান। ৬৩২ পৃষ্ঠার রায়ের সংক্ষিপ্ত সার তিনি আদালতে পড়ে শোনাবেন।

২টা ১০ মিনিট

[খালেদা বসেছেন চেয়ারে]

* আমাদের আদালত প্রতিবেদক প্রকাশ বিশ্বাস জানান, বেলা ১টা ৫০ মিনিটে আদালতে বিচারকের ডায়াসের খুব কাছের একটি চেয়ারে বসেন ঘিয়ে রঙের শিফন শাড়ি পরা খালেদা জিয়া।

* আইনজীবী, পুলিশ ও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে আদলত কক্ষ জনাকীর্ণ। এ মামলার শুনানির দিনগুলোতে আসামিপক্ষের আইনজীবী বেশি থাকতেন। রায়ের দিন প্রসিকিউশনের পক্ষেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক আইনজীবী আদালতে এসেছেন।
 
* বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, নজরুল ইসলাম খান, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী আদালতে রয়েছেন।

 

১টা ৫২ মিনিটে

[আদালতে খালেদা]

* খালেদা জিয়া আদালতে ঢুকে যাওয়ার পরও নাজিমুদ্দিন রোডে সংঘর্ষ চলছে। সেখান থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের সরিয়ে দেওয়ার জন্য পুলিশ টিয়ারশেল ছুড়েছে। দুজনকে আটক করে নিয়ে দেখার কথা বলেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।  

১টা ৪০ মিনিটে

[আদালতে খালেদা]

* রাস্তায় বিএনপিকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘাতের পর আদালতে পৌঁছেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

তার ১৫ মিনিট আগে পায়ে হেঁটে আদালতে প্রবেশ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নেতা।

 

১টা ৩০ মিনিটে

[বিএনপি নেতারা বকশীবাজারে]

* খালেদা জিয়া পৌঁছানোর আগেই চানখার পুলের দিক থেকে পায়ে হেঁটে বকশীবাজার মোড়ে পৌঁছেছেন বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশররফ হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

 

১টা ২৫ মিনিট

[বিএনপি কার্যালয় ঘিরে পুলিশ]

* সংঘর্ষের এলাকা পেরিয়ে হাই কোর্টের সামনে দিয়ে যাচ্ছে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর। আগে থেকে সুপ্রিম কোর্টের ফটক বন্ধ করে আইনজীবীদের বের হওয়ার পথ আটকে দিয়েছে পুলিশ। এ আগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হওয়া বিএনপিকর্মীদেরও পুলিশ সরিয়ে দিয়েছে। খালেদার গাড়ি ঘিরে আর নেতাকর্মীদের ভিড় নেই।

 

 

১টা ১৮ মিনিট

[বিএনপি কার্যালয় ঘিরে পুলিশ]

* নয়া পল্টনের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে কলাপসিবল গেটের সামনে গোয়েন্দা পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। গেইট বন্ধ। ভেতরে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ নেতারা দাঁড়িয়ে আছেন। পুরো ভবনের চারপাশে পুলিশের অবস্থান। র‌্যাবের সদস্যরা রয়েছেন কিছু দূরে।

 

বেলা ১টা ১০

[পুলিশ চড়াও]

* আদালতের পথে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর ঘিরে মিছিলে থাকা হাজারো নেতাকর্মীকে হঠাতে কাকরাইলের চার্চের সামনে পুলিশ টিয়ার শেল ছুড়ে শুরু করেছে লাঠিপেটা। সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক বিশৃঙ্খলা। কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

 

বেলা ১টা ০৫

[স্লোগান, বিশৃঙ্খলা]

* চার পাশে কয়েক হাজার নেতাকর্মীর মিছিলের মধ্যে খালেদার গাড়ির সঙ্গে পুলিশের গাড়ির দূরত্ব তৈরি হয়েছে। এই বিশৃঙ্খলায় গাড়ি এগোচ্ছে খুব ধীর গতিতে। সোয়া এক ঘণ্টায় বহর পৌঁছেছে কেবল বেইলি রোড পর্যন্ত।

* আমাদের অপরাধ বিষয়ক প্রধান প্রতিবেদক লিটন হায়দার জানান, মগবাজারে উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশের সঙ্গে কিছুটা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। তবে খালেদার গাড়িবহর ওই এলাকা ছেড়ে এগিয়ে যাওয়ায় বড় ধরনের জটিলতা তৈরি হয়নি।  

* মিছিল থেকে স্লোগান শোনা যাচ্ছে- আমার নেত্রী আমার মা/বন্দি হতে দেব না; জ্বালো জ্বালো আগুন জ্বালো; খালেদা/খালেদা…

 

বেলা ১২টা ৫৭

[মিছিলে যাচ্ছেন ফখরুলরা]

* বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারা সকাল থেকে ছিলেন নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে। নেতাকর্মীরা তেজগাঁও এলাকায় খালেদা জিয়ার গাড়ি ঘিরে মিছিল শুরু করলে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে থাকা জ্যেষ্ঠ নেতারাও তাদের সঙ্গে যোগ দিতে রওনা হয়েছেন।

* আমাদের রাজনীতি বিষয়ক প্রধান প্রতিবেদক সুমন মাহমুদ জানান, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহিদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ কয়েকজন কার্যালয়ের ফটক দিয়ে বের হতে চাইলে পুলিশ প্রথমে তাদের বাধা দেয়।

* খায়রুল কবির খোকন, শহিদউদ্দিন চৌধুরী অ্যানি সহ কয়েকজন মগবাজারেরকে যেতে চাইলে বাইরে পুলশ তাদের পথ আটকে দেয়

* পরে তাদের যেতে দেওয়া হলে কিছুক্ষণ পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মো. শাহজাহান, আবদুল আওয়াল মিন্টুসহ কয়েকজন পায়ে হেঁটে রওনা হন। পরে তারা কাকরাইল থেকে গাড়িতে ওঠেন।

বেলা ১২টা ৪৪

[স্লোগান, বিশৃঙ্খলা]

* সহস্রাধিক নেতাকর্মীর ভিড়ের মধ্যে খালেদার গাড়ির সঙ্গে পুলিশের গাড়ির দূরত্ব তৈরি হয়েছে। এই বিশৃঙ্খলায় গাড়ি এগোচ্ছে খুব ধীর গতিতে। পুলিশ এখনও কোনো কঠোর ব্যবস্থা নেয়নি।  

বেলা ১২টা ৩৫

[ভিড়ের মধ্যে সোহেল]

* বিএনপিকর্মীদের বেশিরভাগ পায়ে হেঁটে এগোলেও মগবাজার পার হওয়ার পর কিছু মোটরসাইকেলও যোগ হয়েছে। ভিড়ের মধ্যে দেখা গেছে হাবিব-উন নবী খান সোহেলকে, যার হদিস পাওয়া যাচ্ছে না বলে বিএনপি অভিযোগ করে আসছিল।

বেলা ১২টা ২৫

[খালেদার গাড়ি ঘিরে নেতাকর্মী]

* খালেদা জিয়ার গাড়িবহর এফডিসি মোড় পার হওয়ার পর বিএনপির শত শত নেতাকর্মী পুলিশের নিরাপত্তার কড়াকড়ি উপেক্ষা করে তাদের নেত্রীর গাড়িকে ঘিরে ধরে এগোতে শুরু করেছেন। তারা খালেদা জিয়ার নাম ধরে স্লোগান দিচ্ছেন।

 

বেলা ১২টা ১৫

[আদালতের খালেদার অপেক্ষা]

* আদালতে এখনও খালেদা জিয়ার অপেক্ষা। বিচারক এখনও খাস কামরায়। প্রধান আসামি পৌঁছালে শুরু হবে মামলার কার্যক্রম।

* আসামিপক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে উপস্থিত রয়েছেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, অ্যাডভোকেট রেজাক খান, জয়নুল আবেদীন, আমিনুল হক, সানা উল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মো. বোরহান উদ্দিন এবং কাজী সালিমুল হক কামালের আইনজীবী সৈয়দ মিজানুর রহমান।
 
* অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে আছেন দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল, মীর আহমেদ আলী সালাম ও মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর এবং ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে পিপি খন্দকার আবদুল মান্নান।

বেলা ১২টা ১৩

[দুই জন আটক]

* আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক মেহেদী হাসান পিয়াস জানান, বেলা পৌনে ১২টার দিকে সুপ্রিম কোর্টে মাজার গেইটের সামনে থেকে দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের একজন বিজয়নগর এলাকায় ফুটপাতের কাপড় ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম এবং অন্যজন খিলগাঁও এলাকার রিক্সাচালক আমিনুল ইসলাম।
 
* বেলা ১১টার দিকে সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় আইনজীবীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তিও হয়েছে।

 

বেলা ১১টা ৪৫

[আদালতের পথে খালেদা]

* নির্ধারিত সময়ের সোয়া এক ঘণ্টা পর জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের জন্য গুলশানের বাসা থেকে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আদালতের পথে রওনা হয়েছেন মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়া।

* আমাদের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিবেদক সুমন মাহমুদ জানিয়েছেন, খালেদা জিয়া তার ব্যক্তিগত গাড়িতেই যাচ্ছেন। সঙ্গে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল।

* খালেদার গাড়ি ছাড়া তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তাকর্মীদের পাঁচটি গাড়ি রয়েছে বহরে। এছাড়া আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ১৩টি গাড়ি সামনে পেছনে নিরাপত্তা দিচ্ছে।

বেলা ১১টা ৩০

[খালেদার অপেক্ষা]

* খালেদা জিয়া সকাল সাড়ে ১০টায় তার বাসা থেকে আদালতের উদ্দেশ্যে রওনা হবে বলে বিএনপি নেতারা জানিয়েছিলেন।  এক ঘণ্টা আগে আদালতে তার হাজিরাও জমা দিয়েছেন তার আইনজীবী। কিন্তু বেলা ১১টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত খালেদা জিয়া বাসা থেকে বের হননি।

* খালেদা জিয়ার বাসার কর্মী এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েকটি সূত্র থেকে আমাদের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকরা জানিয়েছেন, খালেদা জিয়া প্রস্তুত হয়ে বসে থাকলেও তিনি কোন গাড়িতে কাদের সঙ্গে নিয়ে যাবেন সে বিষয়ে মতের মিল না হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপাসন বের হচ্ছেন না।  

 

বেলা ১১টা ২০

[আদালতে বিচারক]

* পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আদালতে পৌঁছেছেন ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আখতারুজ্জামান। তিনিই আলোচিত মামলার রায় ঘোষণা করবেন। আপাতত তিনি অবস্থান করছেন তার খাস কামরায়।

* দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজলও আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। আদালতে এখন প্রধান আসামি খালেদা জিয়ার অপেক্ষা।

* সকাল ১০টার আগে খালেদা জিয়ার হাজিরা জমা দেন তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া। অর্থাৎ, খালেদা জিয়া রায়ের সময় আদালতে হাজির থাকতে আসছেন।

বেলা ১১টা ০৬

[আইনজীবী পুলিশ মুখোমুখি]

* আমাদের প্রতিবেদক তাবারুল হক জানান, আদালত চত্বরে প্রবেশের সর্বশেষ গেইটে বিএনপিপন্থি কিছু আইনজীবী ঢুকতে গেলে পুলিশ বলে, তালিকার বাইরে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

* পুলিশ তাদের চলে যেতে বললেও আইনজীবীদের একটি অংশ সেখানে জড়ো হয়ে কথা বলতে শুরু করলে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এসে তাদের বলেন, “ডোন্ট ট্রাই টু... কঠিন করে দেব। কেউ ঝামেলা করার চেষ্টা করলে তাহলে চেহারা পাল্টে দেব।”

সকাল ১০টা ৪৫

[শেরপুরে ট্রাকে আগুন]

* শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় ভোরে একটি পাথর বোঝাই ট্রাক পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে শ্রীবরদী থানার ওসি রেজাউল হক জানিয়েছন। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হননি। আগুন লাগানো হয়েছে বললেও কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে- সে বিষয়ে পুলিশ কিছু বলেনি।   

সকাল ১০টা ৩২

[খালেদার আইনজীবীর অভিযোগ]

* আদালতে ঢুকতে দেয়া হয়নি অভিযোগ করে ন্যায়বিচার পাওয়া নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন খালেদা জিয়ার একজন আইনজীবী।

* খালেদা জিয়ার আইনজীবী আহমেদ আজম খান আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের বলেন, “আজকে ত্রিশ বছর ধরে ম্যাডাম খালেদা জিয়ার আইনজীবী আমি। সেটা আপনারা জানেন, সারা জাতি জানে। কিন্তু আমাকে ঢুকতে দেওয়া হল না। তার মানে, আজকে ন্যায়বিচার কতটুকু পাব, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছি। আমার সাংবিধানিক অধিকার যেখানে খর্ব করা হচ্ছে। সেখানে ন্যায়বিচার নিয়ে আমরা শঙ্কিত।”

সকাল ১০টা ২০

[যুবলীগের শো ডাউন]

* আমাদের অপরাধ বিষয়ক প্রধান প্রতিবেদক লিটন হায়দার জানিয়েছেন, রায় ঘিরে দুই দলের মাঠে থাকার ঘোষণার পর ঢাকার পুলিশ মিছিল, জমায়েত, সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা দিলেও যুবলীগে নেতাকর্মীদের সকালে হাই কোর্ট এলাকায় মোটর সাইকেল নিয়ে শো ডাউন করতে দেখা গেছে। 

 

সকাল ১০টা ১০

[উৎকণ্ঠার মধ্যেই পরীক্ষা শুরু]

*খালেদা জিয়ার রায় ঘিরে উত্তেজনার মধ্যে উৎকণ্ঠায় ছিলেন এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তপন কুমার সরকার আমাদের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক শহীদুল ইসলামকে বলেছেন, সকাল ১০টায় নির্ধারিত সময়েই পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

* অবশ্য ঢাকার অনেক স্কুলেই এদিন ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেগুলো খোলা আছে, সেখানেও উপস্থিতি একেবারেই কম।

সকাল ১০টা ০৪

[অপপ্রচারে কান না দেওয়ার পরামর্শ]

* আদালত প্রাঙ্গণ পরিদর্শন করে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, “সাইবার ওয়ার্ল্ডে বিভিন্ন ধরনের প্রপাগান্ডা ছড়ানো হচ্ছে, নগরবাসীকে আতঙ্কগ্রস্ত না হতে বলছি।”

 

সকাল ১০টা ০১

[খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার দায়িত্ব আমাদের: পুলিশ]

* ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের বলেছেন, নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। সবাইকে আইন মেনে চলতে হবে।

খালেদার জিয়ার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বাহিনী সিএসএফকে আদালত চত্বরে ঢুকতে দেওয়া হবে, তবে তারা অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না।

“খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছি আমরা। তার নিরাপত্তা যাতে কোনভাবে বিঘ্নিত না হয় এজন্য আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।”

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, “অত্যন্ত সমন্বিত ও সুদৃঢ় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। জনগণের নিরাপত্তার হুমকি সৃষ্টি করে, ভীতি সৃষ্টি করে সে যেই হোক তার বিরুদ্ধে অত্যন্ত কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার কোনে কারণ নেই। এখন পর্যন্ত অত্যন্ত শৃঙ্খলভাবে সব চলছে।”

 

সকাল ৯টা ৫৭

[কড়া নিড়াপত্তা]

* দুর্নীতি মামলার এ রায়কে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাদের পাল্টাপাল্টি হুঁশিয়ারিতে উত্তেজনার মধ্যে ঢাকায় বৃহস্পতিবার ভোর থেকে সব ধরনের অস্ত্র বহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যান ও জন চলাচলে বিঘ্ন ঘটায়- এমন কোনো মিছিল, জমায়েত, সমাবেশও করা চলবে না।

* একই ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ঢাকার আশপাশের অন্যান্য জেলা এবং মহানগরগুলোতে। সকাল থেকেই ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। পুলিশের রায়ট কারও দেখা গেছে বিভিন্ন স্থানে।

সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকা

সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকা

 

সকাল ৯টা ৪৭

[রায়ের আগে রাস্তা ফাঁকা]

* ঢাকার অধিকাংশ সড়কেই যান চলাচল কম। উদ্বেগ উৎকণ্ঠার মধ্যে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া মানুষ বের হয়েছে কম।  তারপরও বাস না পেয়ে মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে বহু মানুষকে। নারীরা দুর্ভোগে পড়েছেন বেশি। বিভিন্ন স্থানে এসএসসি পরীক্ষার্থীদেরও দেখা গেছে।

* আমাদের প্রতিবেদন জয়ন্ত সাহা জানিয়েছেন, সায়েদাবাদ থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল করছে কম, যাত্রীও কম।

 

সকাল ৯টা ৩৫

[খালেদার বাড়িতে আইনজীবী]

* অন্য কাউকে খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসার কাছে যেতে দেওয়া না হলেও তার আইনজীবী ও দলের যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন সকাল সাড়ে ৯টার পর ভেতরে ঢুকেছেন।

* খালেদা জিয়ার আদালতের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা সকাল সাড়ে ১০টায়।

 

সকাল ৯টা ২৫

[আদালতে দুই আসামি]

* রায় ঘিরে বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত ঘিরে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা।

* আমাদের আদালত প্রতিবেদক প্রকাশ বিশ্বাস জানান, সকালে আল্লামা কাশগরী হলের গেইট দিয়ে সাংবাদিক ও আইনজীবীদের নাম, পরিচয়, ফোন নম্বর লিখিয়ে তল্লাশির পর এজলাসে ঢুকতে দেওয়া হয়েছে।

* কারাগারে থাকা দুই আসামি সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদকে রায়ের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে আদালতে। তারা আদালত কক্ষেই উপস্থিত আছেন।

* এজলাসে আসন সংখ্যা এদিন অন্য দিনের তুলনায় অর্ধেক। আসামিপক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে খালেদা জিয়ার আইনজীবী রেজাক খান ও মাসুদ আহমেদ তালুকদার উপস্থিত হয়েছেন। দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এখনও আসেননি।

সকাল ৯টা ১৫

[খালেদার বাড়ি ঘিরে কড়াকড়ি]

* বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন রায়ের জন্য বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’ থেকে বকশীবাজারে আদালতের উদ্দেশে রওনা হবেন খালেদা জিয়া।

* গুলশান থেকে আমাদের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিবেদক সুমন মাহমুদ জানিয়েছেন, ৯ নম্বর রোডে খালেদা জিয়ার বাসভবন সকাল থেকেই ঘিরে রেখেছে পুলিশ। বাসার সামনের সড়কের দুই দিকে বেরিকেড দেওয়া হয়েছে। গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সামনেও বিপুল সংখ্যক পুলিশ অবস্থান নিয়ে আছে।

*গুলশান ২ নম্বর মোড় পেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের গাড়ি বা মোটর বাইক ভেতরে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। খালেদা জিয়ার বাসার আধা কিলোমিটারের মধ্যে মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্কও ঠিকমত পাওয়া যাচ্ছে না বলে সুমন মাহমুদ জানিয়েছেন।

সকাল ৯টা ০৫

[সদরঘাটের চিত্র]

*দেশের দক্ষিণাঞ্চল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ৪৫টি লঞ্চ ঢাকায় এসেছে। তবে যাত্রী সংখ্যা তুলনামূলকভাবে কম বলে বিআইডব্লিউটিএর পরিবহন পরিদর্শক দিনেশ কুমার সাহা জানিয়েছন।

* লঞ্চ এমভি টিপুর জিএম মো. ফারুক হোসেন আমাদের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক কামাল তালুকদারকে বলেছেন, তাদের ছয়টি লঞ্চ ঢাকায় এসেছে। তবে তল্লাশির কারণে যাত্রীদের অনুরোধে সদরঘাটের বদলে অন্য ঘাটে ভিড়েছে।

* গ্রিন লাইনের ম্যানেজার লক্ষণ শীল জানিয়েছেন, সকাল ৮টায় তাদের লঞ্চ ২০০ যাত্রী নিয়ে বরিশালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে, যদিও ধারণ ক্ষমতা ৬০০।

 

সকাল ৮টা ৫৮

[মহাসড়কে বাস নেই]

* আমাদের প্রতিবেদক ওবায়দুর মাসুম জানান, ঢাকা সিলেট মহাসড়কে সকাল থেকে কোনো বাস চলাচল করছে না। বিশেষ করে ঢাকার কাছাকাছি জেলা থেকে রাজধানীতে আসতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের। তবে ঢাকা থেকে বের হয়ে যাচ্ছে দূরপাল্লার কিছু বাস।

 

* ভুলতা থেকে কুড়িল বিশ্বরোডে বিআরটিসির আর্টিকুলেটেড বাস অন্যদিন যাত্রীতে পূর্ণ থাকলেও আজ যাত্রী তুলনামূলক কম।

সকাল ৮টা ৫২

[তথ্য কণিকা]

* সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় হবে বৃহস্পতিবার

*২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় দুদকের করা এই মামলায় খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান, মাগুরার সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদও আসামি।

* দুই কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে আসামিদের সার্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

* পুরান ঢাকার বকশীবাজারে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আখতারুজ্জামান এই রায় ঘোষণা করবেন।

[৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ৫২ মিনিটে লাইভ শুরু]