২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

জলবায়ু: প্রযুক্তি হস্তান্তরের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  • সুমন মাহবুব, নিউ ইয়র্ক থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-09-26 22:53:34 BdST

bdnews24

জলবায়ু পরিবর্তনের বড় শিকার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় সক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা এবং প্রযুক্তি হস্তান্তরের আহ্বান জানিয়েছেন।

জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি কাটাতে প্যারিস চুক্তির বাস্তবায়ন নিয়ে বুধবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে এক উচ্চ পর্যায়ের সংলাপে এই আহ্বান জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় সক্ষমতা বৃদ্ধিতে আমাদের আরও সহায়তা দরকার। কৃষি, স্বাস্থ্য ও দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রযুক্তির উন্নয়ন ও হস্তান্তর প্রয়োজন।”

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস এই সংলাপে ছিলেন। তিনি শেখ হাসিনার সঙ্গে ব্যক্তিগত পর্যায়েরও আলাপ করেন।

আগামী ডিসেম্বরে পোল্যান্ডে যে কপ-টোয়েন্টিফোর হবে, তাতে প্যারিস চুক্তিতে ২০২০ সালের লক্ষ্য অর্জনে যে সিদ্ধান্তগুলো হয়েছিল, তার আলোকে ক্ষতিপূরণ আদায়ের চাপ দেওয়ার সুযোগ দেশগুলো নেবে বলে আশা প্রকাশ করেন শেখ হাসিনা।

নিজের শৈশব স্মৃতি তুলে ধরে তিনি বলেন, “বাংলাদেশের মতো একটি ব-দ্বীপে আমার জন্ম। আমি নদীর দুই তীরে মানুষের জীবনযাত্রা দেখতে দেখতে বড় হয়েছি।

“জলবায়ু বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় আমার দেশের মানুষকে লড়তে দেখেছি আমি, দেখেছি তাদের অভিযোজন ক্ষমতা এবং উদ্ভাবনী শক্তি।”

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করেই মানুষের পরিশ্রমে বাংলাদেশের খাদ্য উৎপাদনে স্বনির্ভর হয়ে ওঠার কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “আমার শৈশবে, আমার বাবা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের মাটি ও পানির যত্ন নিতে বলেছিলেন। অর্থনীতির সুরক্ষার পাশাপাশি সোনার বাংলা গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখিছেলন তিনি।”

সরকারের জাতীয় পরিকল্পনার ফলে জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় দুর্যোগের ঝুঁকিগুলি হ্রাস পাওয়ার কথা তুলে ধরেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “জলবায়ু পরিবর্তন প্রভাব মোকাবেলার জন্য আমাদের জিডিপির এক শতাংশের বেশি বিনিয়োগ করেছি। আমরা ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বরাদ্দ রেখেছি অভিযোজন ও অভিবাসন প্রক্রিয়ার জন্য।”

পাঁচ বছর আগে নিউ ইয়র্কে উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে কার্বন নির্গমনের মাথাপিছু গড়কে অতিক্রম না করার যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, তা রক্ষায় সরকারের কাজের বিবরণও তুলে ধরেন শেখ হাসিনা।

প্রায় ৬০ লাখ সোলার হোম সিস্টেম স্থাপন এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠির মধ্যে দুই লাখ উন্নত চুলা সরবরাহ করার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি চাপ সহনীয় ফসলের জাত উদ্ভাবনের কথাও বলেন তিনি।