২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫

গ্যাস লাইনে ফুটো থেকে ঢাকার সড়কে গাড়িতে আগুন

  • কামাল তালুকদার ও আতিক ফয়সল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-02-20 19:09:48 BdST

bdnews24

ঢাকার মিরপুর সড়কের নিচের গ্যাস সঞ্চালন লাইনের ফুটো থেকে একটি বাস ও একটি পিকআপভ্যানে আগুন ধরে গেলে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে আহত হয়েছেন কয়েকজন।

বুধবার বিকালের এই দুর্ঘটনার পর তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি মেরামত কাজ শুরু করলে ধানমণ্ডি ও মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

আশুলিয়ায় মেরামত এবং মেট্রোরেলের জন্য পাইপ প্রতিস্থাপনের কারণে এই দুটি এলাকারে বাসিন্দারা গত কয়েক দিন ধরেই গ্যাস নিয়ে সঙ্কট পোহাচ্ছিল।

বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে মিরপুর সড়কে ধানমণ্ডি গভর্নমেন্ট বয়েজ স্কুলের বিপরীতে সানরাইজ প্লাজার সামনে হঠাৎ দুটি গাড়িতে আগুন ধরে যায়। তখন ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নেভায়।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটমকে বলেন, “সড়কের একটি ম্যানহোলের উপর আট নম্বর রুটের একটি বাস থামলে আগুন লাগে। এসময় পেছনে থাকা একটি পিকআপ ভ্যানেও আগুন ধরে যায়।”

ঢাকা মহানগর পুলিশের মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী কমিশনার মৃত্যুঞ্জয় সঞ্জয় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বাসে আগুন লাগলে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে আটজন আহত হয়।”

এদের মধ্যে ছয়জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে যান বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এই ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস ও তিতাস গ্যাসের কর্মীরা সড়কের ওই অংশ ঘিরে লাইন মেরামতের কাজ শুরু করে।
এই কারণে নিউ মার্কেট-গাবতলীর ওই পথে যান চলাচলে সাময়িক বিঘ্ন ঘটছে বলে জানান ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. শফিকুর রহমান।

অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানতে চাইলে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা মিজান বলেন, “ধারণা করা হচ্ছে গ্যাস লাইনে ছিদ্র থাকায় গাড়ির ইঞ্জিনের সঙ্গে সংযোগের কারণে আগুনের ঘটনা ঘটেছে।”

তিতাসের কর্মীরা আসার পর গ্যাস সঞ্চালন লাইনে ছিদ্র হওয়ার বিষয়টি ধরতে পারেন।

যোগাযোগ করা হলে তিতাসের কোম্পানি অ্যাফেয়ার্স বিভাগের উপমহাব্যবস্থাপক মো. ইয়াকুব খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “একটি লাইনে লিকেজ থেকে দুর্ঘটনার সূত্রপাত। তিতাসের কর্মীরা লিকেজ মেরামতের কাজ করছে।”

তিনি বলেন, মেরামতের কারণে মূল লাইনে গ্যাসের চাপ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। ফলে কিছু কিছু এলাকায় গ্যাস চলে গেছে, আবার অনেক এলাকায় গ্যাসের চাপ কমছে। 

ধানমণ্ডি ও মিরপুর এলাকার বেশ কয়েকজন বাসিন্দা জানিয়েছেন, সন্ধ্যার পর তাদের চুলায় গ্যাসের চাপ ধীরে ধীরে কমে যেতে থাকে। পরে তা একেবারেই বন্ধ হয়ে যায়।

তবে পশ্চিম রাজাবাজারের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সন্ধ্যার পর গ্যাসের চাপ কমে গেলেও পুরোপুরি বন্ধ হয়নি।”

রাত ১০টার মধ্যে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক হওয়ার আশা দিয়েছেন তিতাসের পরিচালন শাখার পরিচালক কামরুজ্জামান খান।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে সাভারে একটি সংযোগ লাইন মেরামতের কারণে শনি ও রোববার মিরপুর, ধানমন্ডি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বিঘ্নিত হয়েছিল।

মাঝে সোমবার চালু থাকলেও মেট্রো রেলের কাজের জন্য মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে ১২ ঘণ্টার জন্য মিরপুর, ধানমণ্ডিসহ ঢাকার প্রায় অর্ধেক এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকে।

এরপর বুধবার সকালে গ্যাস ফিরলেও বিকালে দেখা দেয় আবার বিপত্তি।