২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

এক হাটের পশু অন্য হাটে নিলে ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-07-22 18:14:11 BdST

bdnews24

দেশের বিভিন্ন গন্তব্য থেকে আসা কোরবানির পশু নির্ধারিত হাট ছাড়া অন্য কোথাও নামানো যাবে না বলে সতর্ক করে দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

সোমবার সকালে নিজ কার্যালয়ে পশুর হাটের নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে সমন্বয় সভায় নির্ধারিত সীমানার বাইরে পশুর হাট বসাতে দেওয়া হবে না বলেও তিনি জানান।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, “আমাদের সবার সাথে সমন্বয় করে একটি সুন্দর কোরবানির পশুর হাটের ব্যবস্থা করতে হবে। ঢাকা শহরের অনুমোদিত পশুর হাটে থাকবে পুলিশের কঠোর নজরদারি।

“পশুবাহী ট্রাক যেখানে যেতে চায় তা সেখানে যেতে দিতে হবে। কোনো অবস্থায় ট্রাকে বাধা দেওয়া যাবে না। গন্তব্যস্থানের নাম বড় করে ব্যানারে লেখে প্রত্যেকটি ট্রাকের সামনে ঝুলিয়ে রাখাতে হবে। কোনোভাবেই এক হাটের পশু অন্য হাটে জোর করে নামানো যাবে না। যদি এমন কেউ করে তাকে ফৌজদারি অপরাধে আইনের আওতায় আনা হবে।”

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ডিএমপি কমিশনার জানান, ঈদ-উল আযহা সামনে রেখে পশুর হাট, টাকা পরিবহন, চামড়া ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি জালনোট শনাক্তকরণের ব্যবস্থা থাকবে।

তিনি বলেন, হাসিলের টাকার হার বড় ব্যানারে প্রকাশ্যে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। ভ্রাম্যমাণ দোকান ও হকার হাট এলাকায় ঢুকতে পারবে না। ইজারাদাররা নির্দিষ্ট খাবার দোকান ঠিক করে দেবেন।

“ইজারার চৌহদ্দির বাইরে কোনো হাট বসতে দেওয়া হবে না। প্রত্যেক হাটে থাকবে পুলিশের কন্ট্রোল রুম ও ওয়াচ টাওয়ার। পশুর হাটে ও তার আশপাশে জনসচেতনতামূলক ব্যানার দৃশ্যমান স্থানে টানানো ও প্রচার প্রচারণা করতে হবে। জাল টাকা সনাক্তকরণের জন্য পুলিশ কন্ট্রোল রুমে থাকবে জাল টাকা সনাক্তকরণ মেশিন। হাট এলাকায় বসানো হবে সিসি ক্যামেরা।”

ডিএমপি কমিশনার বলেন, কাঁচা চামড়ার পাচার রোধে ঢাকা থেকে বের হওয়ার পথগুলোতে বসানো হবে চেকপোস্ট; নদী পথে বাড়ানো হবে নৌ পুলিশের টহল। ঢাকার বাইরে থেকে শুধুমাত্র কাঁচা চামড়াবাহী যানবাহন ঢাকায় প্রবেশ করতে পারবে।

ঈদুল আযহায় ঢাকা মহানগরে অনুমোদিত পশুর হাট থাকবে মোট ২৭টি, যার মধ্যে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ১৫টি, উত্তর সিটি করপোরেশনে রয়েছে ১১টি পশুর হাট এবং ক্যান্টমেন্ট বোর্ডের অনুমোদনে একটি পশুর হাট থাকবে।

ডিএমপি ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ গোয়েন্দা সংস্থা ও সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধি, বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, দোকান মালিক সমিতি, হাট ইজারাদার, চামড়া ব্যবসায়ীরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।