ইমাম-খতিব মিলে ১২ জনের তারাবি হবে

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-23 20:49:29 BdST

bdnews24
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে এবার শবে বরাতের রাত ছিল ভিন্ন; বায়তুল মোকাররম মসজিদে ইমাম, মুয়াজ্জিন ও কয়েকজন মসজিদের কর্মকর্তা একসঙ্গে এশার নামাজ পড়ার পর মসজিদ বন্ধ করে দেওয়া হয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে এ বছর রমজানে সারা দেশের মসজিদগুলোতে ইমাম-খতিব মিলিয়ে মোট ১২ জন তারাবির নামাজ আদায় করতে পারবেন।

দেশের আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ জানিয়েছেন।

তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মসজিদে তারাবির নামাজ চালু থাকবে। তবে বাইরে থেকে কেউ অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। কারণ এমনিতেই একটি মসজিদে ১২ জনের বেশি লোক থাকেন।

“যেসব মসজিদে ইমাম, হাফেজ, খতিব ও খাদেম মিলিয়ে ১২ জন হবে না, সেসব মসজিদে বাইরে থেকে কে কে নামাজ পড়বে তা মসজিদ কমিটি নির্ধারণ করবে।”

ভাইরাস সংক্রমণ থেকে রক্ষায় এর আগে মসজিদে জুমা ও জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জারি করা নির্দেশনা কার্যকর থাকবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

করোনাভাইরাসের কারণে মসজিদে জামাতে নামাজ পড়া বন্ধ রয়েছে। জুমায় ইমাম, খতিব ও খাদেমসহ ১০ জন এবং অন্যান্য নামাজে ৫ জন নিয়ে মসজিদে জামাত আদায় হচ্ছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, রমজান মাসে ইফতার মাহফিলের নামে কোনো ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না।

এ বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিস্তারিত নির্দেশনাসহ শুক্রবার একটি সার্কুলার  জারি করা হবে।