রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখায়ও র‌্যাবের তালা

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-07-08 17:57:35 BdST

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও বন্ধ করে দিয়েছে র‌্যাব।

পরীক্ষা না করেই করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভুয়া রিপোর্ট দেওয়া, নিয়ম বহির্ভূতভাবে গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা আদায় এবং মেয়াদপূর্তির পরও লাইসেন্স নবায়ন না করায় মঙ্গলবার উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বুধবার বিকালে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিকাল ৪টায় রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখায় গিয়েছেন তারা। হাসপাতালটি ‘সিলগালা’ করা হচ্ছে। পুরো প্রক্রিয়া শেষ হতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মঙ্গলবার ওই হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখা বন্ধের নির্দেশ দেয়। এরপর সন্ধ্যায় উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের ১৭ নম্বর সড়কে রিজেন্ট হাসপাতালের শাখাটি ‘সিলগালা’ করে দেয় র‌্যাব। পরে উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টরের ১৪ নম্বর সড়কে রিজেন্টের প্রধান কার্যালয়ও বন্ধ করা হয়।

বন্ধ হল ‘জালিয়াত’ রিজেন্ট হাসপাতাল

ভুক্তভোগী কেউ অভিযোগ করলে আমলে নেওয়া হবে কি না জানতে চাইলে সারওয়ার আলম বলেন, “যে কোনো নাগরিক যদি কোনো বিষয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ করেন, আমরা অবশ্যই ওই অভিযোগ খতিয়ে দেখব। অভিযোগ আমাদের কাছে বা সরকারের কনসার্নড প্রতিষ্ঠানে অবশ্যই করতে পারেন আর অভিযোগ প্রমাণ হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পরপরই গত মার্চে রিজেন্ট হাসপাতালকে কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য নির্দিষ্ট করেছিল সরকার। কিন্তু আবাসিক এলাকার মধ্যে গড়ে তোলা হাসপাতালে এভাবে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা দেওয়া নিয়ে তখনই আপত্তি জানিয়েছিলেন স্থানীয়রা।

তাদের আপত্তির মধ্যেই রিজেন্ট হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীর চিকিৎসা চলতে থাকে। কিন্তু অতিরিক্ত টাকা আদায়সহ বিভিন্ন অভিযোগ আসতে থাকে রোগী ও স্বজনদের তরফ থেকে।  

এর মধ্যেই নমুনা পরীক্ষা না করে করোনাভাইরাসের ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার ১৪টি অভিযোগ জমা পড়ে র‌্যাবের হাতে। সরকারি প্রতিষ্ঠানের সিল ও প্যাড নকল করে সেসব রিপোর্ট তৈরি করা হলেও র‌্যাব খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, ওই সব সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এসব নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি বা তারা রিপোর্টও দেয়নি।

গ্রেপ্তার করতে রিজেন্ট হাসপাতালের মালিককে ‘খুঁজছে’ র‌্যাব


ওই অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতাল ও রিজেন্ট গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। এরপর মঙ্গলবারও সেখানে অভিযান চলে। দুই জায়গাতেই বেশ কিছু অনুমোদনহীন টেস্ট কিট এবং করোনাভাইরাসের ভুয়া রিপোর্ট পাওয়ার কথা জানানো হয় র‌্যাবের পক্ষ থেকে।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মেডিকেল প্র্যাক্টিস অ্যান্ড প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ল্যাবটরেটরি রেগুলেশন অর্ডিন্যান্স অনুযায়ী রিজেন্ট হাসপাতালের কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ দেওয়ার কথা জানানো হয়।