সিলেটে `নব্য জেএমবি’ পাঁচ সদস্য গ্রেপ্তার

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ও সিলেট প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-11 16:18:44 BdST

ঈদের আগে ঢাকার পল্টনে পুলিশের মোটরসাইকেলে বোমা রাখার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সিলেট থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি দল নব্য জেএমবির পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) উপ-কমিশনার সাইফুল ইসলাম জানান, সিটিটিসি এবং পুলিশ সদরদপ্তরের ল ফুল ইন্টারসেপশন সেলের (এলআইসি) একটি দল সিলেটে ওই অভিযান চালাচ্ছে।

সিলেট পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, ঢাকা থেকে আসা পুলিশের বিশেষ দলটি রোববার রাত থেকে মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত সিলেটের মিরাবাজার, টুকেরবাজার ও দক্ষিণ সুরমায় অভিযান চালিয়ে ওই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারদের পরিচয় সম্পর্কে সিটিটিসির পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। তবে তাদের মধ্যে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী ও সিলেটের মদন মোহন কলেজের এক শিক্ষর্থী রয়েছেন বলে সিলেটের পুলিশ কর্মকর্তাদের কথায় জানা গেছে।

নব্য জেএমবির এই জঙ্গিদের সিলেটে বড় ধরনের হামলা পরিকল্পনা ছিল বলেও ওই পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে উপ-কমিশনার সাইফুল ইসলাম বলেন, “আমাদের অভিযান এখনো চলছে। আগামীকাল সংবাদ সম্মেলনে আমরা বিস্তারিত জানাব।

গত ২৬ জুলাই রাতে ঢাকার পল্টনে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের পাশে মোটরসাইকেল রেখে দায়িত্ব পালন করছিলেন ট্রাফিক পুলিশের একজন সার্জেন্ট। রাত পৌনে ৯টার দিকে মোটরসাইকেলের কাছে এসে তিনি দেখেন, সেখানে একটি পলিথিন ব্যাগ ঝুলছে।

ভেতরে ‘গ্রেনেড সদৃশ’ একটি বস্তু দেখে তিনি দ্রুত পুলিশ বক্সে খবর দেন। পরে ঢাকা মহানগর পুলিশের বোমা নিস্ক্রিয়কারী দল গিয়ে ওই বোমা নিষ্ক্রিয় করে।

তার একদিন আগে ২৫ জুলাই প্রায় একই সময়ে পল্টন মোড়ে কে বা কারা একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই ঘটনায় কেউ আহত হয়নি।

পুলিশ কর্মকর্তা সাইফুল বলেন, “ওই ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা হয়েছে এবং ওই মামলার তদন্ত করতে গিয়েই সিলেটে নব্য জেএমবির ৫ জনকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি।”