ডোপ টেস্ট: চাকরি হারিয়েছেন ঢাকার ২৫ পুলিশ

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-01-20 01:22:41 BdST

bdnews24
(ফাইল ছবি)

ঢাকা মহানগর পুলিশে ডোপ টেস্ট শুরু হওয়ার পর মাদকাসক্তির প্রমাণ মেলায় ২৫ জন পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

মহানগর পুলিশের সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি ওয়ালিদ হোসেন মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে এ তথ্য জানান।

ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে দায়িত্ব নেওয়ার পর মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ এবং ডিএমপি সদস্যদের ডোপ টেস্ট করানোর ঘোষণা দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, এরপর প্রায় এক বছর চার মাসে ডোপ টেস্টে মোট ৮১ জন অভিযুক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬০ জনই কনস্টেবল। এছাড়া একজন পরিদর্শক, আটজন এসআই, ট্রাফিকের একজন সার্জেন্ট, নায়েক ছয়জন এবং এএসআই আছেন পাঁচজন।

গত বছর ২১ নভেম্বর নাগাদ মাদকাসক্তির প্রমাণ পাওয়ায় ১০ জন পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হয়। এর দেড় মাসের মাথায় চাকরিচ্যুতির সংখ্যা ২৫ এ দাঁড়িয়েছে। এই ২৫ জনের অধিকাংশই কনস্টেবল।    

ওয়ালিদ হোসেন বলেন, চাকরিচ্যুতদের বাইরে ১২ জনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আর সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেওয়া হয়েছে ১১ জনের বিরুদ্ধে।

কেবল মাদক সেবন নয়, মাদক কারবারে সংশ্লিষ্টতা, মাদক দিয়ে কাউকে ফাঁসানো, উদ্ধার করা মাদক জব্দ তালিকায় কম দেখানোর মতো অভিযোগের তদন্ত করা হচ্ছে পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, “মাদকের সাথে জড়িত কোনো পুলিশ সদস্যকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। নিয়মিত ডোপ টেস্ট করা হচ্ছে। সব পদের সদস্যদের ডোপ টেস্টের আওতায় আনা হয়েছে।”