ছুটি শেষে অফিসে উপস্থিতি কম, কোলাকুলিও নেই

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-16 13:00:42 BdST

ঈদের ছুটি শেষে অফিস খুললেও প্রথম কার্যদিবসে সেই কর্মচাঞ্চল্য ফেরেনি প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয়ে।

রোববার সকালে মন্ত্রণালয়গুলোর জরুরি সেবা সংশ্লিষ্ট শাখা ছাড়া সচিবালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তেমন উপস্থিতি দেখা যায়নি।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে এবারের ঈদের ছুটি শেষে অফিসপাড়ায় চিরচেনা কোলাকুলির দৃশ্যও অনুপস্থিত।

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

এবার ঈদের ছুটি ছিল ১৩ থেকে ১৫ মে। এর মধ্যে দুই দিন শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় এবারের ঈদের ছুটি দীর্ঘ হয়নি। মহামরীর মধ্যে এবারের ঈদে সবাইকে যার যার কর্মস্থলের এলাকায় থাকতে বলেছিল সরকার। 

সচিবালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ছুটি শেষ হলেও অনেকে অফিসে একটু দেরি করে আসেন বা দুপুরের দিকে আসেন, তাই এখন উপস্থিতি কিছুটা কম।”

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

তার দাবি, ঈদে অতিরিক্ত ছুটি না পাওয়ায় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কর্মস্থলের এলাকাতেই আছেন। সোমবার থেকে উপস্থিতি ‘আগের মত’ হয়ে যাবে বলে তার বিশ্বাস।  

কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে কঠোর বিধিনিষেধের দ্বিতীয় ধাপে ১৪ এপ্রিল থেকে দেশে জরুরি কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে বের হওয়ার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়, যা ‘সর্বাত্মক’ লকডাউন হিসেবে পরিচিতি পায়।

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে নিষ্প্রাণ সচিবালয়।

আগের ঘোষণায় রোববার পর্যন্ত বিধিনিষেধ কার্যকর করার কথা বলা হলেও ইতোমধ্যে সরকার আরও এক সপ্তাহ ‘লকডাউন’ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সর্বাত্মক লকডাউনের মেয়াদ ২৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে রোববারই প্রজ্ঞাপন জারির কথা রয়েছে।