অর্থ পাচারকারীদের তালিকা প্রকাশের দাবিতে দুদকে স্মারকলিপি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-17 16:49:52 BdST

bdnews24

কানাডাসহ বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচারকারীদের তালিকা প্রকাশের দাবি জানিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন।

বৃহস্পতিবার সংগঠনটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুনের যৌথ স্বাক্ষরে কমিশনের চেয়ারম্যানকে দেওয়া এই স্মারকলিপি দুদক সচিব মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার গ্রহণ করেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, “রাষ্ট্রের বিভিন্ন স্তরে দুর্নীতি, অনিয়ম ও বিদেশে অর্থ পাচার কর্মকাণ্ড পরিলক্ষিত হচ্ছে, যা সম্পূর্ণভাবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিুযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থি। এসব দুর্নীতবাজদের দেশবিরোধী কর্মকাণ্ড আমরা কখনই মেনে নিতে পারি না।”

এতে আরও বলা হয়, “কানাডার বেগমপাড়াসহ বিদেশে অর্থ পাচারকারী দুর্নীতিবাজরা এখন নব্য রাজাকারে পরিণত হয়েছে। এরা দেশ ও জাতির প্রকৃত শত্রু। বিদেশে অর্থ পাচারকারীরা বাংলাদেশে বিরোধী ষড়যন্ত্রের মূল হোতা।”

পাচারকারীদের নামের তালিকা প্রকাশের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপিতে বলা হয়, “হাই কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী দুদক এখনও ২৮ জন অর্থ পাচারকারী দুর্নীতিবাজদের তথ্য দিতে পারেনি। আমরা প্রত্যাশা করি, দুদক সেই তালিকা জাতির সামতে দ্রুত প্রকাশ করবে।”

সঠিক নজরদারির অভাব এবং দায়িত্বে অবহেলার কারণে প্রতিবছর দেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে বলে দাবি করছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মিছিল নিয়ে এসে স্মারকলিপি দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ আটকে দেওয়ায় চার সদস্যের প্রতিনিধি দল এসে স্মারকরিপি জমা দিয়ে যান।

দুদক সচিব আনোয়ার হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা তাদের (মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ) দাবির প্রতি সম্মান জানাই। অর্থ পাচারকারীদের তালিকা জানার জন্য ইতোমধ্যে আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছি। তারা এখনও আমাদেরকে কোনো তালিকা সম্পর্কে অবহিত করেনি। কমিশন এ বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে।”

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক জানান, তারা একই দাবিতে গত সপ্তাহে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে।

পাচার হওয়া অর্থের তথ্য দিচ্ছে না বিভিন্ন দেশ: দুদক চেয়ারম্যান

অর্থ পাচার কারা করেছে, নামগুলো দিন: অর্থমন্ত্রী  

এর আগে গত মঙ্গলবার দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, বিদেশে অর্থ পাচারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পর্যাপ্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলো থেকে না পাওয়ায় যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না।

বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাচারে কারা জড়িত, তাদের বিষয়ে কোনো তথ্য না থাকার কথা সম্প্রতি জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

গত ৭ জুন সম্পূরক বাজেটের উপর আলোচনায় বিরোধীদলীয় সদস্যরা অর্থ পাচারের প্রসঙ্গ আনলে মুস্তফা কামাল অর্থ পাচারকারীদের নাম জানা থাকলে তার কাছে দেওয়ারও অনুরোধ করেন।