পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‘ব্র্যাক লার্নিং সেন্টার’ দেখলেন বিএনএফই মহাপরিচালক

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-10-17 22:11:54 BdST

সরকার উপানুষ্ঠানিক শিক্ষায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর (বিএনএফই) মহাপরিচালক মো. আতাউর রহমান।

ব্র্যাকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শনিবার উখিয়ার ১৫ ও ১৬ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ব্র্যাকের শিক্ষা কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে কক্সবাজারের একটি হোটেলে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আতাউর রহমান বলেন, “রোহিঙ্গা ও হোস্ট কমিউনিটিতে ব্র্যাক দীর্ঘদিন ধরে যে কাজ করছে, তা বেশ ইতিবাচক, প্রশংসনীয় ও বাস্তবসম্মত। ব্র্যাকের সে অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চায় সরকার।”

রোহিঙ্গা ও হোস্ট কমিউনিটিতে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষায় ব্র্যাকের মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের কাজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে নতুন কিছু উদ্ভাবনের তাগিদ দেন তিনি।

“নতুন উদ্ভাবনী ধারণা ও শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সরকার ব্র্যাকের পাশে থাকবে। এক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে।”

এর আগে শনিবার সকালে কক্সবাজারের কুতুপালংয়ের ১৫ ও ১৬ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিশুদের পাঠশালা হিসেবে পরিচিত ‘ব্র্যাক লার্নিং সেন্টার’ পরিদর্শন করেন বিএনএফই মহাপরিচালক।

সেখানে তিনি রোহিঙ্গা শিশু, তাদের অভিভাবক ও শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলেন এবং এই ধরনের শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন।

আলোচনা অনুষ্ঠানে ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির (এইচসিএমপি) আওতাধীন শিক্ষা কার্যক্রম সংক্রান্ত উপস্থাপনা তুলে ধরেন সেক্টর লিড খান মোহাম্মদ ফেরদৌস।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্র্যাক এ পর্যন্ত রোহিঙ্গা ও হোস্ট কমিউনিটিতে ৭৩ হাজার ১৮২ জন ছেলে-মেয়েকে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষার আওতায় এনেছে। ব্র্যাকের লক্ষ্য ভবিষ্যতে ১ হাজার সেন্টারের মাধ্যমে ১ লাখ সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে এ ধরনের শিক্ষার আওতায় আনা।

অন্যদের মধ্যে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর উপ-পরিচালক (প্রশাসন) মো. রিপন কবীর লস্কর, ব্র্যাকের শিক্ষা কর্মসূচির পরিচালক সাফি রহমান খান, একই কর্মসূচির চিফ অব পার্টি মো. মাহমুদ হাছান আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন।