পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

জাহাঙ্গীর আর কতদিন, নিষ্পত্তি আইন দেখে: তাজুল

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-20 16:25:13 BdST

bdnews24
জাহাঙ্গীর আলম শনিবার সাংবাদিকদের সামনে এসে বলেন, তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার।

দলীয় প্রতীকে নির্বাচিত হওয়া গাজীপুরের মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম দল থেকে বহিষ্কৃত হওয়ায় মেয়র পদে থাকতে পারবেন কি না, তা স্পষ্ট করতে পারলেন না স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

“আইন দেখে পরবর্তীতে এ ব্যাপারে মন্তব্য করা হবে,” সাংবাদিকদের প্রশ্নে বলেছেন তিনি।

২০১৮ সালে গাজীপুর সিটি করপোরশেন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন জাহাঙ্গীর।

বঙ্গবন্ধু ও শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য আওয়ামী লীগ শুক্রবার তাকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে।

দলীয় প্রতীকে নির্বাচিত হওয়ায় এখন তার মেয়র পদ থাকবে কি না, তা প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক কোনো মন্তব্য না করে স্থানীয় সরকারমন্ত্রীকে দেখিয়ে দিয়েছিলেন।

শনিবার ঢাকার সোনারগাঁর হোটেলে ড্যাপ নিয়ে এক অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুলকে পেয়ে জাহাঙ্গীরের বিষয়ে তাকে প্রশ্ন করে সাংবাদিকরা।

জবাবে তিনি বলেন, “মেয়র পদে থাকবে কি না, এ বিষয়টা আইন পর্যবেক্ষণ না করে আমার পক্ষে মন্তব্য করা সম্ভব নয়। আইন দেখে পরবর্তীতে এ ব্যাপারে মন্তব্য করা হবে। এখন মেয়র আছে। কতদিন থাকবে, সেটা আইন দ্বারা নিষ্পত্তি করা হবে।”

 

গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার

দল থেকে বহিষ্কার: জাহাঙ্গীরের মেয়র পদের কী হবে  

বহিষ্কৃত জাহাঙ্গীর কাঁদলেন, বললেন ‘ষড়যন্ত্র’  

দলীয় প্রতীকে সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় সরকার নির্বাচন শুরুর পাঁচ বছর পর এই প্রথম কোনো মেয়রকে দল থেকে বহিষ্কারের ঘটনা ঘটল। তবে দল থেকে বহিষ্কৃত হলে কী হবে, সে বিষয়ে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনে স্পষ্ট করে কিছু বলা নেই।

তবে নৈতিক স্খলনজনিত অপরাধে মেয়রদের কেউ আদালতে দণ্ডিত হলে তাকে অপসারণের বিধান আইনে রয়েছে।

জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহীদ এবং বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য।

এদিকে সাবেক নির্বাচন কমিশনার আবদুল মোবারক মনে করেন, দলীয় প্রতীকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি দল থেকে বহিষ্কার হলে মেয়র পদেও থাকতে পারেন না।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কারণ, দলে তো উনি আর নেই, তাহলে দল থেকে বহিষ্কার করলে তো আর (মেয়রের) চেয়ার থাকে না। এটা সাধারণ হিসেব।”