পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

হাফ ভাড়ার আন্দোলনে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সমর্থন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-24 19:20:17 BdST

bdnews24
ঢাকার সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকায় মঙ্গলবার বুকে ‘হাফ পাস চাই’ লিখে আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী। ছবি:মাহমুদ জামান অভি

গণপরিবহনে অর্ধেক ভাড়ার দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে সমর্থন দিয়েছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান।

বুধবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের কাছে নিজের মতামত প্রকাশ করেন তিনি।

মুরাদ বলেন, “ছাত্রছাত্রীরা যে আন্দোলনটা করছে, এটার যৌক্তিকতা অবশ্যই আছে। প্রত্যেক দেশে শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথক সুযোগ সুবিধা সরকার দেয়। আমাদের দেশে আমরা তাদেরকে এই সুবিধাটুকু দেব না কেন? আমার মতামতটা হচ্ছে তাদের যে দাবি এটা বাস্তবায়ন করা উচিৎ।”

বাসে ‘হাফ ভাড়া’ বাস্তবায়ন পর্যায়ক্রমে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  

সম্প্রতি ডিজেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় গণপরিবহনের ভাড়াও ২৭ শতাংশ বাড়িয়েছে সরকার। এরপর শিক্ষার্থীরা বাসে তাদের ভাড়া অর্ধেক নেওয়ার দাবিতে আন্দোলনে নামে। প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন স্থানে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের খবর আসছে।

এর মধ্যে কয়েকটি স্থানে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। আবার অর্ধেক ভাড়া দিতে চাওয়ায় এক কলেজ শিক্ষার্থী পরিবহনকর্মীদের হাতে হেনস্তাও হয়েছেন।

গণপরিবহনে নারীদের হেনস্তার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, “একজন সুস্থ মানুষের পক্ষে একজন নারীর গায়ে হাত দেওয়া সম্ভব নয়। হয় অসুস্থ, না হয় বিকারগ্রস্ত। আমি একজন চিকিৎসক হিসাবে এটাই বলব।

“বাসের ড্রাইভার হোক আর হেলপার হোক, যারাই এরকম করে, তাদের কি মেয়ে নেই? ঘরে পরিবার নেই, স্ত্রী নেই, মা-বোন নেই? আমার কাছে এটা বোধগম্য নয়।”

এদিকে একই অনুষ্ঠানে কারান্তরীণ যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর বিষয়েও নিজের ক্ষোভের কথা জানান মুরাদ।

তিনি বলেন,“আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে আমার অনুভূতির কথা বলব। আমি সরকার বা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে বলছি না। আমার অভিব্যক্তি দেলোয়ার হোসেন সাইদীর মতো একটা কুখ্যাত রাজাকার,  এই রাজাকারটাকে এভাবে কারাগারে সুন্দরভাবে আদর আপ্যায়ন করার কোনো মানে হয় না।”