পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

‘বের করে দেওয়া’ সেই যমজ এক শিশু সুস্থ, বাড়ি ফিরেছে

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-25 00:14:09 BdST

সম্পূর্ণ বিল পরিশোধ না করায় ‘আমার বাংলাদেশ’ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বের করে দেওয়া যমজ শিশুর মধ্যে বেঁচে থাকা আব্দুল্লাহ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুটি সম্পূর্ণরূপে সুস্থ হলে সোমবার তাকে হাসপাতাল থেকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‍্যাব- ৩ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর জুলকার নায়েন।

সোমবার বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, শ্যামলীর হাসপাতাল থেকে বের করে দেওয়ার পর বেঁচে থাকা যমজ শিশু আব্দুল্লাহকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

গত ৬ জানুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দুই শিশুকে টাকা বকেয়া থাকায় বের করে দিয়েছিলেন শ্যামলীর আমার বাংলাদেশ হাসপাতালের মালিক গোলাম সারোয়ার (৫৭)। পরে এদের একজন আহমেদের মৃত্যু হয়।

গণমাধ্যমে এ নিয়ে খবর এলে গত ৭ জানুয়ারি বিকালে মালিককে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-৩।

ঠাণ্ডার সমস্যায় ভোগা ছয় মাসের দুই শিশু আব্দুল্লাহ ও আহমেদকে নিয়ে সাভারের বাটপাড়া রেডিও কলোনি থেকে গত ৩১ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন আয়েশা আক্তার।

কিন্তু সেখানে এনআইসিইউতে সিট খালি না থাকায় ‘তুলনামূলক কম খরচে চিকিৎসার আশ্বাস দিয়ে’ এক অ্যাম্বুলেন্স চালক দুই শিশুকে কলেজ গেইট এলাকার ‘আমার বাংলাদেশ হাসপাতালে’ ভর্তি করেন।

সেখানে ছয় দিন চিকিৎসা দেওয়ার পর একলাখ ২৬ হাজার টাকা দাবি করেন গোলাম সরোয়ার। বিল কমিয়ে ধরার অনুরোধ করে কয়েক দফায় ৫০ হাজার টাকা পরিশোধের পরও টাকার জন্য তিনি চাপ দিতে থাকেন।

গত ৬ জানুয়ারি বিকালে তাদের বের করে দিয়ে শাহিন নামে একজনের মাধ্যমে ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয় বলে আয়েশা বেগমের দাবি। পথে এক শিশুর মৃত্যু হয়, অন্যজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন:

টাকার জন্য যমজ শিশুদের মাকেও নির্যাতন করেন হাসপাতাল মালিক সারোয়ার: র‌্যাব  

চিকিৎসাধীন শিশুর মৃত্যু: শ্যামলীর হাসপাতাল মালিকের বিরুদ্ধে মামলা  

‘বের করে দেওয়া’ যমজ এক শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালের মালিক আটক  

টাকা না পেয়ে ‘বের করে দিল’ হাসপাতাল, পথে শিশুর মৃত্যু