পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কিশোরকে চাপা: পাল্লা দেওয়া একটি বাস চালাচ্ছিল ‘হেলপার’

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-26 17:55:01 BdST

bdnews24

ঢাকার মগবাজারে গত সপ্তাহে আজমেরী গ্লোরী পরিব্হনের যে দুই বাসের পাল্লার মাঝে পড়ে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছিল, তার একটি চালাচ্ছিলেন চালকের সহকারী। 

ওই দুই বাসের মধ্যে একটির চালক এবং অন্যটির চালকের সহকারীকে গ্রেপ্তারের পর বুধবার ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য তুলে ধরেন র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাকিব নামে ১৪ বছরের কিশোরকে চাপা দেওয়া আজমেরী গ্লোরী পরিব্হনের দুটি বাসের একটি চালাচ্ছিলেন চালকের সহকারী মো. মনির হোসেন (২৭)।

মনিরকে মঙ্গলবার রাতে ঢাকার পল্টন এলাকা থেকে এবং অন্য বাসের চালক মো. ইমরানকে (৩৪) মুন্সীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করার কথা জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

খন্দকার আল মঈন বলেন, “সদরঘাট থেকে গাজীপুরের চন্দ্রা যাওয়ার পথে গুলিস্তানে এসে মনিরকে বাসটি চালাতে দেন মূল চালক সুমন। পরে মগবাজারে অন্য বাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চলার সময় ওই কিশোরকে চাপা দিয়ে যায়।”

মনিরের বাড়ি ভোলায়। পাঁচ বছর মধ্যপ্রাচ্যে থাকার পর তিন মাস আগে তিনি দেশে আসেন। কাজের খোঁজে ঢাকায় আসেন দেড় মাস আগে।

“এক মাস আগে আজমেরী গ্লোরী বাসের চালকের সঙ্গে দৈনিক ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা মজুরিতে হেলপারের কাজ নেন। মাঝেমধ্যে বাসটি চালাতেন তিনি,” বলেন র‌্যাব কর্মকর্তা মঈন।

মনিরকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে র‌্যাব জানায়, মগবাজার মোড়ের সিগন্যাল ছেড়ে দিলে পরবর্তী স্টপেজে যাওয়ার জন্য দ্রুত বাসটি চালাচ্ছিলেন মনির। কারণ আগে পৌঁছাতে পারলে পরের স্টপেজে  বেশি যাত্রী তোলা যাবে।

অন্যদিকে গ্রেপ্তার ইমরানকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে র‌্যাব কমান্ডার মঈন বলেন, “সে ১০ থেকে ১২ বছর ধরে আজমেরী কোম্পানির বাস চালাচ্ছে। দুর্ঘটনায় পড়া বাসটি দুই বছর ধরে চালিয়ে আসছে। সেও হেলপার ছিল, তিন বছর আগে ড্রাইভিং লাইসেন্স করেছে।”

মালিকের কাছ থেকে দৈনিক ৩ হাজার ৫০০ টাকা জমার শর্তে বাসটি চালিয়ে আসছিলেন ইমরান। তার বিরুদ্ধে গত বছর কুমিল্লার দাউদকান্দি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা মঈন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দুটি বাসের মাঝে চাপা পড়ার পর কিশোর রাকিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ঘটনায় সড়ক ও পরিবহন আইন ২০১৮ এর ৯৮ ও ১০৫ ধারায় রমনা মডেল থানায় একটি মামলা করেন রাকিবের পরিবারের সদস্যরা।

আরও খবর:

বাসের ‘পাল্লায়’ প্রাণ গেল মাস্ক বিক্রেতা কিশোরের