পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

‘ব্রিকস’ ব্যাংকের যাত্রা শুরু

  • . রয়টার্স
    Published: 2015-07-21 22:24:48 BdST

ব্রিকস ব্যাংক নামে পরিচিত নিউ ডেভলেপমেন্ট ব্যাংকের (এনডিবি) যাত্রা শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার চীনের বাণিজ্যিক রাজধানী সাংহাইয়ে ব্যাংকটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদীয়মান অর্থনীতির দেশ ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকার (ব্রিকস) উদ্যোগে গঠিত নতুন এই ব্যাংককে এই দেশগুলোতে অবকাঠামো উন্নয়ন ও উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়নের ক্ষেত্রে বিশ্ব ব্যাংক ও আইএমএফের বিকল্প হিসেবে ভাবা হচ্ছে।

সম্প্রতি চীনের নেতৃত্বে এশিয়ান ইনভেস্টমেন্ট ইনফ্রাস্ট্রাকচার ব্যাংক (এআইআইবি) প্রতিষ্ঠার পর এনডিবির যাত্রা শুরু হল।

মঙ্গলবার ব্যাংকটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ২০১২ সালে প্রথম প্রস্তাব আসার পর দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হল। ব্যাংকের তহবিল জোগান, ব্যবস্থাপনা ও সদরদপ্তর নিয়ে মতদ্বৈততায় এনডিবি চালু বিলম্বিত হয়। 

ভারতের কুন্ডাপুর ভামান কামাথ (৬৭) আগামী পাঁচ বছর এনডিবির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করবেন।

তিনি বলেন, “বর্তমান আন্তর্জাতিক অর্থ ব্যবস্থাকে চ্যালেঞ্জ করা আমাদের লক্ষ্য নয়। আমাদের মতো করে ব্যবস্থার উন্নয়ন ও এতে গতিশীলতা আনা আমাদের লক্ষ্য।”

কুন্ডাপুর ভামান কামাথ

কামাথ জানান, বেইজিংয়ে এআইআইবির সঙ্গে বৈঠকের পর তারা দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ‘হটলাইন’ চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং ‘সম্পূর্ণ ভিন্ন ধারায় নতুন ইনস্টিটিউশনগুলোর মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক’ গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

চীনের অর্থমন্ত্রী লোউ জি ওয়ে বলেন, অবকাঠামো প্রকল্পে এনডিবির সহায়তা “উদীয়মান ও উন্নয়নশীল দেশগুলো দীর্ঘদিন যেসব বাধা মোকাবেলা করে আসছে সেগুলো হ্রাস করার পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি বৃদ্ধিতে তাদের সহযোগিতা করবে।”

নতুন ব্যাংকটিকে নিয়ে বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট কারেন ফিঙ্কেলস্টোন বলেন, “আমাদের অবস্থান থেকে আমরা বাস্তবিক অর্থে নতুন ইনস্টিটিউশনগুলোর সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করতে আগ্রহী।”

বিশ্ব ব্যাংক মানবসম্পদের মতো বিষয়গুলোতে এআইআইবি ও এনডিবিকে সহযোগিতা করছে বলে জানান তিনি।

ব্রিকস সম্মেলনে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট দিলমা রৌসেফ, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা (ফাইল ছবি)

জাপান নেতৃত্বাধীন এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের এক বিবৃতিতে এনডিবির সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে অর্থায়নের আগ্রহের কথা বলা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে এনডিবির ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার তহবিল থাকছে। ব্রিকসের পাঁচ সদস্য দেশ সমানভাবে এখানে অর্থ দিচ্ছে এবং প্রতিটি দেশেরই সমান ভোটাধিকার রয়েছে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে তহবিল ১০০ বিলিয়ন ডলারে নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

এর বাইরে আরও ১০০ বিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থের একটি রিজার্ভ কারেন্সি পুল গড়ে তোলা হবে। চীন ৪১ বিলিয়ন ডলার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে; ব্রাজিল, ভারত ও রাশিয়া ১৮ বিলিয়ন ডলার করে এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ৫ বিলিয়ন ডলার দিবে।

ভারতের সবচেয়ে বড় বেসরকারি ব্যাংক আইসিআইসিআইয়ের সাবেক নির্বাহী কামাথ চলতি মাসের শুরুর দিকে রয়টার্সকে বলেন, আগামী বছর এপ্রিলে প্রথম ঋণ ইস্যুর পরিকল্পনা করেছে এনডিবি।