ওজনে কারচুপি: ২ পেট্রোল পাম্পে তেল বিক্রি বন্ধের নির্দেশ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-19 23:49:41 BdST

ওজনে কম দেওয়ায় রাজধানীর দুটি পেট্রোল পাম্পের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)।

ওই দুটি পাম্প যেন তেল কিনতে বা বিক্রি করতে না পারে, সে বিষয়েও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্টদের।

ঢাকার যাত্রাবাড়ী এলাকার মেসার্স ফাতেমা নাজ ফিলিং স্টেশন ও ধামরাইয়ের মেসার্স বোরাক ফিলিং স্টেশন অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টারের বিরুদ্ধে এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে মঙ্গলবার বিএসটিআইয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এর মধ্যে ফাতেমা নাজ ফিলিং স্টেশনে রোববার অভিযান চালায় বিএসটিআই। সেখানে তিনটি ডিসপেন্সিং ইউনিট থেকে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে যথাক্রমে ৮৩০ মিলিলিটার ও ৭৬০ মিলিলিটার এবং অকটেন ৫১০ মিলিলিটার কম দেওয়া হচ্ছিল বলে প্রমাণ পাওয়া যায়।

পরদিন ধামরাই উপজেলায় বোরাক ফিলিং স্টেশন অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টারে অভিযানে গিয়ে বিএসটিআই কর্মকর্তারা দেখতে পান, সেখানে ছয়টি ডিসপেন্সিং ইউনিট থেকে প্রতি ১০ লিটার ডিজেলে ৩৪০ মিলিলিটার, ৩৪০ মিলিলিটার, ৩২০ মিলিলিটার ও ২৯০ মিলিলিটার কম দেওয়া হচ্ছে;  আর অকটেনে ৩০০ মিলিলিটার এবং পেট্রোলে ২৯০ মিলিলিটার তেল কম দেওয়া হচ্ছে।

প্রতিষ্ঠান দুটির বিরুদ্ধে ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড আইন-২০১৮ অনুযায়ী আদালতে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বিএসটিআই বলছে, বাতাসে সহজে মিশ্রণপ্রবণ পেট্রোল-অকটেন প্রতি ১০ লিটারে ৩০ মিলিলিটার কম হওয়ার সুযোগ রয়েছে। এর চেয়ে কম বেশি হলে সেটা অপরাধ বলে গণ্য হবে।

ইন্সটিটিউশনের উপ-পরিচালক রেজাউল করিমের নেতৃত্বে সহকারী পরিচালক মোন্নাফ হোসেন, পরিদর্শক লিয়াকত হোসেন, রাকিবুল আলম ও বিল্লাল হোসেন এই অভিযানে অংশ নেন।