উপকূলের অসহায় মানুষের পাশে এমটিবি-এমআরডিআই

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-05-19 18:12:33 BdST

কোভিড-১৯ মহামারীতে ক্ষতিগ্রস্থ ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চর কুকরী মুকরী ইউনিয়নের চর পাতিলা ও শাহবাজপুর গ্রামের অসহায় মানুষকে নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি) ও এমআরডিআই।

মঙ্গলবার শরীফপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থী, চর পাতিলা স্বাস্থ্যসেবা ও নারী উন্নয়ন কেন্দ্রের সব সদস্য এবং শাহবাজপুর গ্রামের ১০০টি প্রান্তিক পরিবারসহ মোট ৫১০ পরিবারকে দুই হাজার টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয় বলে এমআরডিআই’র এ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হূয়।

এ সময় চর ফ্যাশন উপজেলার নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন, চর কুকরী মুকরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম মহাজন এবং উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের পরিচালক মনির আহমেদ শুভ্র উপস্থিতি ছিলেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে অন্যান্য এলাকার মত ক্ষতিগ্রস্ত চর কুকরীর মুকরীর এই গ্রাম দুটি। এ পরিস্থিতিতে এমটিবি তার সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলের আওতায় এমআরডিআই’র অংশীদারীত্বে এই কার্যক্রম গ্রহন করে।

এ উপলক্ষে এমটিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুবুর রহমান বলেন, “উন্নয়ন কার্যক্রমকে ব্যবসায়ীর সামাজিক দায়বদ্ধতা উদ্যোগের মাধ্যমে টেকসই করাই আমাদের লক্ষ্য। করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকতে পেরে আমরা আনন্দিত। আমাদের এই কার্যক্রম ভবিষতেও অব্যাহত থাকবে।”

এমআরডিআই’র নির্বাহী পরিচালক হাসিবুব রহমান বলেন, ব্যবসায়ীর সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলের সমন্বিত ব্যবহার কোভিড-১৯ দুর্যোগ মোকাবিলায় বিশেষ অবদান রাখতে পারে। যা সরকারের কার্যক্রমের সম্পূরক ও পরিপূরক হিসাবে ভূমিকা রাখবে।

এ বিষয়ে তিনি ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

নগদ অর্থ বিতরন অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন বলেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারি কার্যক্রমের পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের সামাজিক দায়বদ্ধতা কার্যক্রম সহায়ক ভূমিকা রেখে চলেছে। যার একটি দৃষ্টান্ত এমটিবির এই উদ্যোগ।

চর কুকরী মুকরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম মহাজন বলেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে লোকালয় থেকে বিচ্ছিন্ন এই গ্রামের মানুষেরা সম্পূর্ণরুপে বেকার হয়ে পড়ায় দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনীয় চাহিদাগুলো পূরণ করতে পারছে না। এই সময়ে সরকারের পাশাপাশি এমটিবির পক্ষ থেকে এই অর্থ সহায়তা তাদের মধ্যে স্বস্তি নিয়ে আসবে। 

মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন, বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে অবস্থিত চর পাতিলা গ্রামের জনগণ উন্নয়নের যাবতীয় সুযোগ এবং সেবা থেকে বঞ্চিত। গ্রামের অর্ধেক মানুষ ভূমিহীন, ৬০ শতাংশের বেশি অতি দরিদ্র, শতকরা ৮০ জন নিরক্ষর এবং ৬০ ভাগের বেশি পেশায় মৎসজীবী।

প্রায় এক দশক ধরে প্রত্যন্ত এই গ্রামের মানুষের উন্নয়নে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের সামাজিক দায়বদ্ধতা কার্যক্রমের আওতায় এমআরডিআই উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের সহযোগিতায় নানা উদ্যোগ বাস্তবায়িত হচ্ছে।