পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মিলার-ব্যবসায়ীদের কাছে কত খাদ্যশস্য মজুদ, জানতে চেয়ে চিঠি

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-26 23:30:34 BdST

bdnews24
ফাইল ছবি

দেশের চালকল মালিক ও ব্যবসায়ীদের কাছে কি পরিমাণ ধান, চাল ও গম মজুদ আছে সেই তথ্য জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধানের এই নির্দেশনা পেয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্প্রতি এক চিঠিতে খাদ্য অধিদপ্তরকে দেশের চালকল মালিক ও ব্যবসায়ীদের মজুদ খাদ্যশস্যের তথ্য জানাতে বলেছে।

এসব তথ্য পাঁচ দিনের মধ্যে জানাতে সব জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এবং আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রকদের গত ২৪ অগাস্ট চিঠি দিয়েছে খাদ্য অধিদপ্তর।

এবারের বোরো মৌসুমে ২০ লাখ মেট্রিক টন ধান-চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে সরকার। আগামী ৩১ অগাস্টের মধ্যে এসব খাদ্যশস্য সংগ্রহের কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত অর্ধেকও সংগ্রহ করা যায়নি।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, সরকার নির্ধারিত দামে মিল মালিক এবার সরকারিভাবে মজুদের জন্য চাল সরবরাহ না করায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় প্রয়োজন অনুযায়ী চাল আমদানির অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সরকারি গুদামে বর্তমানে ১৩ লাখ ১৪ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুদ আছে। এর মধ্যে ১০ লাখ ৭৫ হাজার টন চাল এবং দুই লাখ ৩৯ হাজার টন গম।

খাদ্যশস্যের এই মজুদকে সরকার ‘সন্তোষজনক’ মনে করলেও সাম্প্রতিক সময়ে বাজারে চালের দাম বেড়েছে।

চালের দাম বাড়ছেই  

পরিস্থিতি বিবেচনার পরই চাল আমদানির সিদ্ধান্ত হবে: কৃষিমন্ত্রী  

চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী  

প্রয়োজনে সীমিত পরিমাণে চাল আমদানির পরিকল্পনা