দোকান খুলবে ‘আগের নিয়মে’: হেলাল উদ্দিন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-17 19:16:26 BdST

bdnews24
স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে বৃহস্পতিবার ঈদের আগে ঢাকার গাউছিয়া মার্কেটে কেনাকাটা মানুষ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

লকডাউনের বর্ধিত মেয়াদে আগের মতই ‘স্বাস্থ্যবিধি মেনে’ দোকানপাট ও বিপণিবিতান চালু থাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন।

সোমবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, “সর্বশেষ লকডাউনের প্রজ্ঞাপনে দোকান-বিপণি বন্ধ রাখার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এর মানে হচ্ছে আগের নিয়মে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দোকান খোলা থাকবে।

“তবে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের বিষয়ে আমরা আগের মতোই কঠোর থাকব।”

আগের বিধিনিষেধের শর্ত বহাল রেখে লকডাউনের বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে রোববার ওই প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার।

সেখানে দোকানপাট বা বিপণি বিতানের বিষয়ে আলাদা করে কিছু না বললেও আগের বিধিনিষেধের শর্ত বহাল রাখার কথা রয়েছে। 

বেপরোয়া ঈদযাত্রার পর করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে সরকার চলমান লকডাউনের মেয়াদ এক সপ্তাহ বাড়িয়ে ২৩ পর্যন্ত বাড়ায়।

গত এপ্রিল মাস থেকে বিভিন্ন মেয়াদে দেওয়া বিধিনিষেধ যা লকডাউন নামে পরিচিতি পেয়েছে, সেগুলোতে এক সময় নিত্যপণ্যের দোকান ছাড়া অন্যান্য বিপণিবিতান বন্ধ রাখা হয়েছিল। 

পরে রোজার ঈদকে সামনে রেখে ‘জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে’ একপর্যায়ে বিপণিবিতান খুলে দেওয়া হয়।

তবে ঈদবাজারে মানুষের উপচে পড়া ভিড়ে আবার সংক্রমণ বাড়ার শঙ্কা প্রকাশ করেন বিশেষজ্ঞরা। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানার পরও নাগরিকদের স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে সচেতন থাকতে দেখা যায়নি।

এমনকি ঈদের কেনাকাটার সময় মধ্যরাত পর্যন্ত বিপণিবিতান খোলা রাখা হয়। এ প্রসঙ্গে দোকান মালিক সমিতির সভাপতি বলেন, “সেটা ছিল অঘোষিতভাবে। ঈদ বাজারে ক্রেতাদের ভিড় সামলানোর জন্য।”

তিনি জানান, সাপ্তাহিক ছুটির হিসেবে মঙ্গলবার নিউ মার্কেট এলাকা বন্ধ, বুধবার বন্ধ মগবাজার-মৌচাক এলাকা আবার শুক্রবারে পুরান ঢাকা এলাকার দোকান বন্ধ থাকে।

তাই দোকানপাট খুললেও তা ধীরে ধীরেই খুলবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “আমরা বলেছি-দোকান খোলার জন্য

শপিংমল, দোকানপাট রোববার থেকে খোলা  

ঈদের খুশিতে ঝুঁকির কেনাকাটা