পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মহামারীকালে চাকরিহারা ব্যাংকারদের ফিরিয়ে আনার নির্দেশ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-17 00:23:53 BdST

bdnews24

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে দেশে গত দেড় বছরে সুনির্দিষ্ট ও প্রমাণিত অভিযোগ ছাড়া যে সব ব্যাংককর্মী চাকরিচ্যুত হয়েছেন বা পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন, তাদেরকে চাকরিতে ফিরিয়ে আনতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পাতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এ্ই সংক্রান্ত নির্দেশনা সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে পাঠানো হয়েছে।

ব্যাংকগুলোকে আরও বলা হয়েছে, গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে চলতি বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকের যে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে কিংবা যারা পদত্যাগ করেছেন, তাদের তথ্যও আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠাতে হবে।

গত বছরের মার্চে দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঘটেছিল। তারপর সাধারণ ছুটির মধ্যেও ব্যাংক খোলা থাকায় ব্যাংককর্মীদের কাজ করতে হয়েছিল।

তবে এই সময়ে কত সংখ্যক ব্যাংককর্মী চাকরিচ্যুত কিংবা পদত্যাগ করতে হয়েছে, সে বিষয়ক কোনো তথ্য জানা যায়নি।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, “সম্প্রতি কিছু সংখ্যক ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীর নিকট হতে এ মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে যে, সুনির্দিষ্ট ও প্রমাণিত কোনো অভিযোগ না থাকা সত্ত্বেও কোভিডকালীন শুধুমাত্র লক্ষ্যমাত্রা অর্জন না করা বা অদক্ষতার অজুহাতে কর্মকর্তা-কর্মচারীগণকে চাকরিচ্যুত করা হচ্ছে ও চাকরি হতে পদত্যাগে বাধ্য করা হচ্ছে এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে পদত্যাগ করার পর কর্মকর্তা-কর্মচারীগণকে প্রাপ্য আর্থিক সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে না।”

সুনির্দিষ্ট ও প্রমাণিত অভিযোগ ছাড়া চাকরিচ্যুত বা পদত্যাগে বাধ্য হওয়াদের বিষয়ে বলা হয়, “তাদেরকে (আবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে) বিধি মোতাবেক চাকরিতে বহাল করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।”

ব্যাংকগুলোতে ঢালাও কর্মচারীদের ছাঁটাই করতে নিষেধ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

“এভাবে চাকরিচ্যুত করা হলে ব্যাংকে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীগণের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হবে এবং তাদের মনোবল হ্রাস পাবে।”

মহামারীর মধ্যে ব্যাংক সেবা দিতে গিয়ে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীর কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হওয়া এবং অনেকের মারা যাওয়ার কথাও স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয় নির্দেশনায়।