পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

অনিশ্চয়তা পেরিয়ে বুয়েটের ভর্তিযুদ্ধে ১২ হাজার শিক্ষার্থী

  • নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-14 14:10:35 BdST

আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর বিক্ষোভ-আন্দোলন আর অনিশ্চয়তা পেরিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিল ১২ হাজার শিক্ষার্থী।

সোমবার সকাল ৯টা থেকে প্রকৌশল ও স্থাপত্য বিভাগের এই ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়।মোট ১২ হাজার ১৬১ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১০ হাজার ৭৬৩ জন প্রকৌশলের এবং ১৩৯৮ জন স্থাপত্যের।

ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীরা সকাল বেলা ১২টায় পরীক্ষা শেষ করেন। তাদের সঙ্গে পরীক্ষায় বসা আর্কিটেকচারের শিক্ষার্থীদের অংকন পরীক্ষা হবে বেলা ২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

সকালে বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে উপাচার্য সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, “আমাদের সাধ্যের মধ্যে যেসব বিষয় আছে সেগুলো সমাধানের উদ্যোগ নিয়েছি। যেগুলোর সাধ্যের বাইরে সেগুলো সমাধানে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা ও কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি।”

তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নির্যাতনে নিহত হওয়ার পর বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে বুয়েট।

উপাচার্য সাইফুল ইসলাম তাদের ১০ দফা দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দিলেও শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের পাঁচটি দাবি তাৎক্ষণিকভাবে বাস্তবায়নের বিজ্ঞপ্তি দিলে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আন্দোলন শিথিল করা হয়।  

বুয়েটের প্রধান ফটক থেকে পলাশী পর্যন্ত হল সংলগ্ন দেয়ালে আঁকা হয়েছে প্রতিবাদী ছবি, গ্রাফিতি। কোথাও কোথাও দেখা যাচ্ছে রক্তাক্ত আবরারের ছবি, নির্যাতন বন্ধের দাবিতে স্লোগান।

ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে আবরার হত্যার বিচার দাবিতে অভিভাবকদের স্বাক্ষর সংগ্রহ করেন আন্দোলনকারীরা।