পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

এক ডোজ টিকার শর্তে ঢাবির হল ৫ অক্টোবর খোলার সুপারিশ

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-15 22:13:22 BdST

অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার শর্তে ৫ অক্টোবর থেকে অগ্রাধিকারভিত্তিতে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় ওই দিন থেকে শিক্ষার্থীদের হলে ওঠানোর সুপারিশ করা হয় বলে জানিয়েছেন কমিটির সভাপতি ও বিজয় একাত্তর হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক আবদুল বাছির।

স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা শেষ হলে নভেম্বরে দ্বিতীয় ধাপে অনার্স প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের হলে ওঠানো হবে বলে জানান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে ২৭ সেপ্টেম্বরের পর

উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন ক্রমশ ধূসর  

আগামীর জন্য কী ভাবছে শতবর্ষী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়?  

অধ্যাপক বাছির বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে অনার্স ফাইনাল ইয়ার ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা হলের পরিচয়পত্র ও টিকা গ্রহণের কার্ড প্রদর্শন করে হলে প্রবেশ করতে পারবে।

“হলে উঠতে হলে শিক্ষার্থীদের অন্ততপক্ষে এক ডোজ টিকা নিতে হবে।“

যারা ভ্যাকসিন নেয়নি তাদেরকে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নিবন্ধন করতে বলা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এছাড়া শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার সুবিধার্থে ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ও বিভাগগুলোর সেমিনার লাইব্রেরি খুলে দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

অধ্যাপক বাছির বলেন," যেহেতু পরীক্ষা চলবে, সেহেতু তাদের পড়ালেখার জন্য লাইব্রেরিগুলোও খোলা রাখতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ব্যবহারের সুযোগ দিতে সুপারিশ করা হয়েছে।"

ঢাবির হল অক্টোবর থেকে খুলতে প্রভোস্ট কমিটির সুপারিশ  

শিক্ষার্থীদের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ঢাবির হল,‘থাকবে না গণরুম’

‘সীমিত পরিসরে’ অক্টোবরেই ঢাবির হল খোলার পরিকল্পনা  

বিশ্ববিদ্যালয় খোলার বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "প্রভোস্ট কমিটি যেসব সুপারিশ করেছে, সেগুলো আমরা আগামীকাল ডিনস কমিটি ও একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় আলোচনা করব।

“শিগগির বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সভা আহ্বান করা হবে। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার তারিখসহ এসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।"