চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য বিনামূল্যে পরিবহন সেবা

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-01 19:04:31 BdST

bdnews24

নভেল করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে নেওয়া প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থায় সারা দেশে ছুটি ঘোষণার পর গণপরিবহণ, লঞ্চ ও ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। 

সাধারণ মানুষের জন্য ঘরে থাকা আবশ্যিক হলেও চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মহামারীর এই সময়ে জরুরি চিকিৎসা সেবা দিত হাসপাতালে যেতেই হচ্ছে। সড়কে পরিবহন সঙ্কট থাকায় বিপাকে পড়তে হচ্ছে তাদের।

এ পরিস্থিতিতে ‘ক্র্যাক প্লাটুন’ নামে বিশেষ পরিবহন সেবা চালু করেছে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। এই সেবার আওতায় ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বিনা খরচে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা।

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর বুধবার থেকে চারটি বাস এবং আটটি মাইক্রোবাস নিয়ে শুরু হয়েছে ‘ক্র্যাক প্লাটুনের’ কার্যক্রম।

এ কাজে এগিয়ে এসেছে ট্রান্সপোর্ট আইটি সলিউশন প্রতিষ্ঠান বন্ডস্টেইন টেকনোলজিস এবং দ্য আর্থ সোসাইটি। অনুমতি দেওয়াসহ পুরো প্রক্রিয়াটির সঙ্গে রয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

চালু হওয়ার পর পরপরই আড়াইশরও বেশি চিকিৎসক এই সেবা পেতে নিবন্ধন করেছেন বলে জানিয়েছেন বন্ডস্টেইন টেকনোলজিসের পরিচালক জাফির শাফি চৌধুরী।

তিনি বুধবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বাংলাদেশে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ার পর গণপরিবহন বন্ধ হয়ে গেলে অন্যান্য পেশাজীবীদের চেয়ে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যখাতের কর্মীরা যানবাহন সঙ্কটে পড়েছেন।

পরিচিত চিকিৎসকদের অনেকেরই যাতায়াতের সমস্যার কথা বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পেরে তার সমাধানের ভাবনা থেকেই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন তিনি।

জাফির বলেন, “মনে হয়েছে যে, তাদের জন্য আমরা কিছু করতে পারি কি না। গাড়ি আছে কিন্তু কেউ সার্ভিস দিচ্ছে না। কিছু গাড়ি নিয়ে যদি দুই পক্ষকে সংযুক্ত করে দিতে পারি তাহলে তাদের উপকার হবে।

“তারা তাদের সার্ভিস টাইম আমাদের জানাচ্ছেন। আমরা সেভাবেই রুট ভাগ করে তাদের পিক-ড্রপ দিচ্ছি। হাসপাতাল থেকে বাসা অথবা বাসা থেকে হাসপাতালে যাচ্ছে।”

উদ্যোগটি নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে শুরুতেই ভালো সাড়া পান বলে জানিয়েছেন জাফির। পরে বন্ডস্টেইন টেকনোলজিসের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয় আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। 

জাফির বলেন, ডিবিএল ফার্মাসিউটিক্যালস নামে একটি প্রতিষ্ঠান সেবাটি চালু করতে প্রয়োজনীয় আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে। একটি রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান কয়েকটি গাড়ি দিয়েছে। তবে এজন্য গাড়ির মালিকদের কোনো টাকা দেওয়া হচ্ছে না, শুধু তেল ও চালকের বেতন দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া গাড়িগুলো প্রতিদিন জীবাণুমুক্ত করার কাজে সহযোগিতা করছে অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশন।

‘ক্র্যাক প্লাটুনের’ এই বিশেষ পরিবহন সেবা রাজধানীর ১৬টা রুটে চলাচল করছে। প্রতিদিন সকাল ৮টা, দুপুর ২টা এবং রাত ৮টায় এসব গাড়ি স্বাস্থ্যকর্মীদের আনা-নেওয়ার কাজ করছে।

দেশে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সময় হাসপাতালে যাতায়াতে বিশেষ এই পরিবহন সেবাটি পেতে চিকিৎসাকর্মীদের নিবন্ধন করতে হবে bit.ly/crackplatoontransport লিংকে গিয়ে অথবা ০৯৬৩৯৫৯৫৯৫৯ নম্বরে ফোন করেও নিবন্ধন করা যাবে।