পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কোভিড-১৯ টিকার তৃতীয় ডোজ অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রে

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-08-14 12:17:02 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স

দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার মানুষদের কোভিড-১৯ টিকার তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ প্রয়োগের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ)।

বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার এফডিএর এই অনুমোদনের ঘোষণা সেখানকার এক কোটি বাসিন্দার ওপর প্রভাব ফেলবে, যাদের মধ্যে বিভিন্ন অঙ্গ প্রতিস্থাপনকারী ও ক্যান্সারের রোগীও রয়েছে।

এর মাধ্যমে প্রথমবার যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা এই ইঙ্গিত দিলেন, কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়তে টিকার বুস্টার ডোজ দরকার হতে পারে। আরও কয়েকটি দেশেও বুস্টার ডোজ প্রয়োগ শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কনট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) একটি টিকা প্যানেল শুক্রবার ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর জন্য সম্মিলিতভাবে বুস্টার ডোজের পক্ষে ভোট দেয়। আশা করা হচ্ছে, সংস্থাটি দ্রুতই এই পরামর্শ অনুমোদন করবে এবং চলতি সপ্তাহের শেষ নাগাদ বুস্টার ডোজ প্রয়োগ শুরু হয়ে যেতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মডার্না বা ফাইজার-বায়োএনটেকের দুই ডোজের কোভিড-১৯ টিকা বা জনসন অ্যান্ড জনসনের এক ডোজের টিকা হয়তো কিছু মানুষের সুরক্ষার জন্য পর্যাপ্ত নয়, বিশেষ করে যাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল।

তিনটি ওষুধ কোম্পানির টিকাই বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছে। ফাইজার, যারা পূর্ণ অনুমোদনের আবেদন জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে তৃতীয় একটি বুস্টার ডোজ প্রয়োগের অনুমোদনের জন্য সুপারিশ চালাচ্ছে।

প্রমাণ মিলেছে যে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অ্যান্টিবডির নিরাপত্তা দুর্বল হতে থাকে, এবং কিছু ব্যক্তি চোরবাজারে তৃতীয় ডোজের সন্ধান করছেন।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যানথনি ফাউচি বলেন, যাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল তাদের জন্যই হয়তো একটি তৃতীয় ডোজ দরকার হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ মাধ্যম সিবিএসকে তিনি বলেন, “বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা এখনও সবার জন্য তৃতীয় ডোজ প্রয়োগের বিষয়টি বিবেচনা করছি না, শুধু যাদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুর্বল তারা বাদে।”

অন্যদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বুস্টার ডোজ অনুমোদনের ক্ষেত্রে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একটি স্থগিতাদেশ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছে যাতে সব দেশ তাদের জনসংখ্যার অন্তত ১০ শতাংশকে টিকাদান শেষ করতে পারে।

ইসরায়েল এরইমধ্যে সেদেশের ৬০ বছরের বেশি বয়স্কদের বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু করেছে, যারা অন্তত পাঁচ মাস আগে টিকা নিয়েছেন।

যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানিও সেপ্টেম্বরের শুরু থেকে তৃতীয় ডোজ টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে।

চিলিতে যারা চীনের সিনোভ্যাক টিকা পেয়েছেন বুধবার থেকে তাদের তৃতীয় ডোজ টিকাদান শুরু হয়েছে। অন্য দেশগুলোর মধ্যে সুইডেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড ও দক্ষিণ কোরিয়া তাদের নাগরিকদের কোভিড টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।